• বুধবার   ২০ জানুয়ারি ২০২১ ||

  • মাঘ ৬ ১৪২৭

  • || ০৬ জমাদিউস সানি ১৪৪২

দৈনিক জামালপুর

উল্লাপাড়ায় সমালোচনার শীর্ষে কাউন্সিলর প্রাথী সোহেল রানা

দৈনিক জামালপুর

প্রকাশিত: ২৯ নভেম্বর ২০২০  

আসন্ন উল্লাপাড়া পৌরসভা  নির্বাচনে ৮ নং ওয়ার্ডে কাউন্সিলর পদে জনগনের সমালোচনার শীর্ষে রয়েছেন তরুণ নেতা যুব সমাজের গৌরব সিরাজগঞ্জ জেলা ট্রাক ও কাভার্ড ভ্যান পরিবহন শ্রমিক ইউনিয়নের উল্লাপাড়া আর.এস শাখার সাধারন সম্পাদক ও  ৮ নং ওয়ার্ড আওয়ামীলীগের সাধারন সম্পাদক সোহেল রানা।

 

উল্লাপাড়া পৌরসভার ৮ নং ওয়ার্ডের পাড়া- মহল্লায়, রাস্তা-ঘাটে, হোটেল-রেস্তরায়, চায়ের দোকানে, রাজনৈতিক দলীয় কার্যালয়ে আলোচনা ও সমালোচনায় গুঞ্জরিত হচ্ছে ওয়ার্ডের কাউন্সিলর প্রার্থীদেরকে নিয়ে। তবে সবার মুখে আলোচনার শীর্ষে রয়েছেন যুব সমাজের আইকন, জনগণের আস্থাভাজন, তরুন নেতা সোহেল রানা।

 

তবে পৌরসভার ৮ নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর প্রত্যাশীরা বসে নেই। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমসহ বিভিন্ন উপায়ে নিজেদের পরিচিতি সকলের সামনে তুলে ধরছেন। পাড়া-মহল্লায় গিয়ে মানুষদেরকে দিচ্ছেন নানা প্রতিশ্রুতি। তবে সোহেন রানা নিজে প্রার্থীতা ঘোষনা না করলেও জনগন তাকে কাউন্সিলর  হিসেবে তাকে দেখতে চায়। প্রার্থী হিসেবে বর্তমানে ভোটারদের মাঝে পরিচিতির মাধ্যমে আলোচিত সমালোচিত হচ্ছেন সোহেল। দীর্ঘ সময় রাজনীতির সাথে জড়িত থাকায় পৌর এলাকায় পরিচিত হয়ে উঠেছেন জনদরদি হিসেবে। তবে দল থেকে সমর্থন দিলে তবেই ভোটের মাঠে কাজ করবেন বলে জানান এই নেতা।

 

তরুন এই নেতা করোনাকালীন সময়ে জনগণের বাড়ি বাড়ি গিয়ে স্বাস্থ্য ও জনসচেতনামূলক পরামর্শ দিয়ে হয়েছেন জনপ্রিয়। সেই সাথে বিনামূল্যে দিয়েছেন মাক্স, সাবান, হ্যান্ড স্যানিটাইজার। বিতরণ করছেন ইফতার সামগ্রী, চাল, ডাল, ঈদ উপহার ও রান্না করা খাবার। এছাড়াও বানভাসীদেরকে শুকনো খাবারের পাশাপাশি প্রয়োজনীয় ঔষধ, খাদ্যসামগ্রীসহ নগদ আর্থিক সহায়তা দিয়েছেন এই নেতা। সেই সাথে কর্মহীনদের কর্ম জুটিয়ে দেওয়ার ব্যবস্থাও করেছেন তিনি।

 

সুবিধা বঞ্চিত শিশু শিক্ষার্থীদের জন্য দিয়েছেন বই, খাতা ও কলম। এছাড়াও করেছেন সাধ্যমত নিজ গ্রামের ভাঙ্গা রাস্তা মেরামত। সামাজিক সংগঠনের মধ্যেও রয়েছে তার গভীর সম্পর্ক। সামাজিক সংগঠনের পাশাপাশি ধর্মীয় প্রতিষ্ঠানেও দিচ্ছেন ব্যাপক আর্থিক সহযোগিতা।

 

উল্লাপাড়া পৌরসভার শ্রীফলগাঁতী গ্রামের জাহাঙ্গীর হোসেন প্রামাণিক ও আব্দুস সাত্তার এই প্রতিবেদককে বলেন, ব্যবসা প্রতিষ্ঠানের পাশাপাশি রাজনীতিতে সম্পৃক্ত থেকে তিনি জনগণের জন্য কাজ করতে চান। বঙ্গবন্ধুর আদর্শের একজন সৈনিক হিসেবে নিজের মেধা ও সততা দিয়ে দল ও দেশের জন্য সুস্থ ধারার রাজনীতিতে জীবন বিলিয়ে দিতে চান। 

উল্লাপাড়া পৌরসভার নেওয়ারগাছা গ্রামের মোহাম্মদ আলী ও কামাল হোসেন এই প্রতিবেদককে আরোও জানান, পৌরসভার ৮ নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর প্রার্থী হিসেবে তিনি প্রার্থীতা ঘোষণা না দিলেও জনগন তাকে কাউন্সিলর হিসেবে পেতে চায়। তবে দলীয় সিদ্ধান্ত মেনে নিয়ে তিনি দলের জন্য কাজ করবেন।

 

এ বিষয়ে পৌরসভার ৮ নং ওয়ার্ড আওয়ামীলীগের সাধারন সম্পাদক সোহেল রানার সাথে মুঠোফোনে কথা হলে তিনি বলেন, ব্যক্তিগত ভাবে প্রার্থী হবার আমার কোন ইচ্ছা নেই। তবে আমাকে নিয়ে সাধারণ জনগন নানাভাবে আলোচনা- সমালোচনা করছেন। এটা জনগণের ভালোবাসার বহিঃপ্রকাশ। তাই আমি জনগনের প্রতি ভালোবাসা ও কৃতজ্ঞ প্রকাশ করছি। আমি যেন তাদের কাছে চিরদিন ভালোবাসার পাত্র হয়েই থাকতে পারি।

 

আমাদের উল্লাপাড়া-সলঙ্গার উন্নয়নের রুপকার, যার ছোঁয়ায় ইতিমধ্যে উল্লাপাড়া তথা সলঙ্গায় সর্বত্র ব্যাপক উন্নয়ন সাধিত হয়েছে তারি ধারাবাহিকতায় আমাদের পৌরসভার ৮ নং ওয়ার্ডেও লেগেছে উন্নয়ন ছোয়া। তাই উন্নয়নের রূপকারের সৈনিক হয়ে আগামিতে আমি আমার এলাকাবাসির সকল উন্নয়ন ও সেবামুলক কাজে নিয়োজিত থাকবো ইনশাআল্লাহ।

দৈনিক জামালপুর
দৈনিক জামালপুর