• মঙ্গলবার   ০৭ জুলাই ২০২০ ||

  • আষাঢ় ২৩ ১৪২৭

  • || ১৬ জ্বিলকদ ১৪৪১

দৈনিক জামালপুর
২৬১

কৃষকদের জন্য বাংলাদেশ ব্যাংকের সুখবর

দৈনিক জামালপুর

প্রকাশিত: ২৮ এপ্রিল ২০২০  

দেশের কৃষকদের সুখবর দিয়েছে বাংলাদেশ ব্যাংক। কৃষিখাতে ঋণে সুদের হার কমানোর নির্দেশনা দিয়েছে কেন্দ্রীয় ব্যাংকটি। এখন থেকে গ্রাহক পর্যায়ে ৪ শতাংশ সুদ আদায় করবে ব্যাংকগুলো।

 

সোমবার বাংলাদেশ ব্যাংকের কৃষি ঋণ বিভাগ এ সংক্রান্ত একটি নির্দেশনা জারি করে। এতে বলা হয়েছে, চলতি বছরের ১ এপ্রিল থেকে আগামী বছরের ৩০ জুন পর্যন্ত এ নির্দেশনা বলবৎ থাকবে।

বর্তমানে নয় শতাংশ হারে সুদ আদায় করে ব্যাংকগুলো। নতুন এ নির্দেশনা অনুযায়ী, অবশিষ্ট ৫ শতাংশ সুদ কেন্দ্রীয় ব্যাংক ক্ষতি বাবদ ভর্তুকি হিসেবে সংশ্লিষ্ট ব্যাংককে দেবে। 

 

দেশের সব তফসিলি ব্যাংকের নির্বাহী কর্মকর্তা ও ব্যবস্থাপনা পরিচালকদের কাছে পাঠানো নির্দেশনায় বলা হয়, নভেল করোনাভাইরাসের প্রাদুর্ভাবের কারণে আগামীতে খাদ্যের উৎপাদন ও খাদ্য সরবরাহ স্বাভাবিক রাখার লক্ষ্যে কৃষি খাতে শস্য ও ফসল চাষের জন্য কৃষক পর্যায়ে স্বল্প সুদে কৃষি ঋণ সরবরাহ করা অত্যাবশ্যক। 

 

উল্লেখ্য, আমদানি বিকল্প ফসলসমূহ (ডাল, তেলবীজ, মসলা জাতীয় ফসল ও ভুট্টা)  চাষ করার জন্য কৃষক পর্যায়ে ৪ শতাংশ রেয়াতি সুদ হারে কৃষি ঋণ বিতরণের জন্য তফসিলি ব্যাংকসমূহের প্রতি নির্দেশনা রয়েছে।

 

এ অবস্থায় আমদানি বিকল্প ফসলসমূহের পাশাপাশি কৃষি ও পল্লীঋণ নীতিমালা ও কর্মসূচিতে উল্লিখিত ধান, গমসহ সব দানা শস্য, অর্থকরী ফসল, শাক-সবজি ও কন্দাল ফসল  চাষের জন্যও সুদ-ক্ষতি সুবিধার আওতায় কৃষক পর্যায়ে প্রণোদনা হিসেবে ৪ শতাংশ রেয়াতি সুদ হারে কৃষি ঋণ বিতরণ করার নির্দেশনা প্রদান করা হলো। বিতরণকৃত ঋণসমূহের বিপরীতে ব্যাংকসমূহ বাংলাদেশ ব্যাংক হতে প্রকৃত সুদ-ক্ষতি বাবদ ৫ শতাংশ হারে সুদ-ক্ষতি পুনর্ভরণ সুবিধা প্রাপ্য হবে।

 

নির্দেশনায় বলা হয়েছে, এ স্কীমের নাম হবে ‘নভেল করোনাভাইরাসের প্রাদুর্ভাবের কারণে সৃষ্ট সংকট মোকাবিলায় শস্য ও ফসল খাতে ৪ শতাংশ রেয়াতি সুদ হারে কৃষি ঋণ প্রদান’। 

 

এর আওতায় কৃষক পর্যায়ে সুদের হার হবে সর্বোচ্চ ৪ শতাংশ। এ সুদ হার  চলমান এবং নতুন ঋণগ্রহীতা, উভয় ক্ষেত্রেই প্রযোজ্য হবে। তবে ৩০ জুন ২০২১ এর পর  চলমান ঋণসমূহের অবশিষ্ট মেয়াদের জন্য স্বাভাবিক সুদহার প্রযোজ্য হবে।

দৈনিক জামালপুর
দৈনিক জামালপুর
অর্থনীতি বিভাগের পাঠকপ্রিয় খবর