• শুক্রবার   ২৩ অক্টোবর ২০২০ ||

  • কার্তিক ৭ ১৪২৭

  • || ০৬ রবিউল আউয়াল ১৪৪২

দৈনিক জামালপুর

ধুনটে গরীবের চালসহ দুইজন গ্রেফতার

দৈনিক জামালপুর

প্রকাশিত: ২৪ জুলাই ২০২০  

বগুড়ার ধুনট উপজেলায় কালোবাজারে পাচারের চেষ্টাকালে ৩ হাজার ২৬৫ কেজি ওজনের ৯৩ বস্তা গরীবের ভিজিএফ’র চালসহ দুইজনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। 

বৃহস্পতিবার বিকেলের দিকে ধুনট থানা থেকে আদালতের মাধ্যমে তাদের বগুড়া জেলা কারাগারে পাঠানো হয়েছে।  এর আগে বুধবার রাত ১২টার দিকে ধুনট উপজেলার যমুনা নদীর শহরাবাড়ি ঘাট এলাকা থেকে তাদের গ্রেফতার করা হয়। 

গ্রেফতারকৃতরা হলেন, সারিয়াকান্দি উপজেলার সোনালী চালকলের মালিক চুনিয়াপাড়া গ্রামের মজনু খান (৪৫) ও কথা চালকলের মালিক গোসাইবাড়ি পূর্বপাড়ার আল আমিন (৩৮)। 

মামলা সূত্রে জানা যায়, বুধবার সন্ধ্যায় ইঞ্জিন চালিত নৌকা বোঝাই করে ৯৩ বস্তা চাল সারিয়াকান্দির বোহাইল চর থেকে যমুনা নদীপথে ধুনট উপজেলার শহরাবাড়ি ঘাট এলাকায় পৌছে। সেখানে থেকে চাল নামানোর সময় থানা পুলিশ নৌকাসহ চাল জব্দ করে। এসময় চালের মালিক মজনু খান ও আল-আমিনকে আটক করে পুলিশ। 

সংবাদ পেয়ে ধুনট উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা সঞ্জয় কুমার মহন্ত ও সারিয়াকান্দি উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা রাসেল মিয়া ঘটনাস্থলে পৌছে ৯৩বস্তা চাল জব্দ করেন। এরপর জব্দকৃত চালের বস্তা গুলো গোসাইবাড়ি ইউনিয় পরিষদের চেয়ারম্যানরে জিম্মায় রাখা হয়েছে।  

স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, ঈদুল আযহা উপলক্ষে ২১জুলাই বন্যা দূর্গত এলাকার সারিয়াকান্দি উপজেলার বোহাইল ইউনিয়নে দুঃস্থদের মাঝে ভিজিএফ’র চাল বিতরণ করা হয়। সেই চাল কম মূল্যে কিনে নেন মজনু খান ও আল আমিন। তারা চাল গুলো ধুনট উপজেলার চুনিয়াপাড়া গ্রামে সোনালী চালকল ও কথা চালকলের গুদামে সংরক্ষনের জন্য আনতে ছিলেন। 

পরবর্তীতে ওই দুই ব্যবসায়ী সুযোগ বুঝে এই চাল গুলো সরকারি গুদামে বিক্রি করতেন। এ ঘটনায় উপজেলা প্রকল্পবাস্তবায়ন কর্মকর্তা (পিআইও) আব্দুল হালিম বাদী হয়ে মজনু খান ও আল আমিনসহ ৪ জনের বিরুদ্ধে থানায় একটি মামলা দায়ের করেন।  

ধুনট থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) কৃপা সিন্ধু বালা এ তথ্য নিশ্চিত করে বলেন, এই মামলায় গ্রেফতার দেখিয়ে প্রধান দুই আসামীকে আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠানো হয়েছে। এই মামলার অন্য আসামীদের গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে।

দৈনিক জামালপুর
দৈনিক জামালপুর