• শনিবার   ৩১ অক্টোবর ২০২০ ||

  • কার্তিক ১৬ ১৪২৭

  • || ১৪ রবিউল আউয়াল ১৪৪২

দৈনিক জামালপুর

ধুনটে ধর্ষণে অন্তঃসত্বা তরুনীর মামলায় বখাটে কারাগারে

দৈনিক জামালপুর

প্রকাশিত: ১৯ সেপ্টেম্বর ২০২০  

বগুড়ার ধুনট উপজেলায় ধর্ষণে সাত মাসের অন্তঃসত্বা প্রতিবন্ধী তরুনীর মামলায় গ্রেপ্তার দেখিয়ে বিদ্যুত হোসেন (২৪) নামে সেই বখাটেকে কারাগারে পাঠিয়েছে পুলিশ। বিদ্যুত হোসেন উপজেলার চৌকিবাড়ি গ্রামের শাহ কামালের ছেলে।

 

শনিবার দুপুরের দিকে ধুনট থানা থেকে আদালতের মাধ্যমে তাকে বগুড়া জেলা কারাগারে পাঠানো হয়। একই সাথে ধর্ষক বিদ্যুতের ডিএনএ পরীক্ষার জন্য অনুমতি চেয়ে আদালতে আবেদন করেছেন পুলিশ। এরআগে বিদ্যুত হোসনকে শুক্রবার সকালের দিকে চৌকিবাড়ি গ্রামে নিজ বাড়ি থেকে আটক করা হয়।

 

মামলা সূত্রে জানা গেছে, ধর্ষণের শিকার মেয়েটির বাবা পেশায় দর্জি। তিনি বাড়ির অদুরে দিঘলকান্দি তিনমাথা বাজার এলাকায় টেইলার্সে পোশাক তৈরী করেন। প্রায় ১৫ বছর আগে ওই মেয়েটিকে দত্তক নেন টেইলার্সের মালিক। বর্তমানে মেয়েটির বয়স কমপক্ষে ১৬ বছর। গত ২৫ জানুয়ারী মেয়েটির বাবা ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে কাজ করতে যান এবং মা যান পাশের বাড়ি বেড়াতে। এ সুযোগে প্রতিবেশী বখাটে বিদ্যুত হোসেন মেয়েটিকে বাড়িতে একা পেয়ে ধর্ষণ করে।

 

এরপর ধর্ষনের বিষয়টি প্রকাশ না করার জন্য মেয়েটিকে ভয়ভীতি দেখিয়ে ওই বাড়ি থেকে কেটে পড়ে বখাটে বিদুত। এ কারণে মেয়েটি এ বিষয়টি প্রকাশ করেনি। এ অবস্থায় মেয়ের শারীরিক পরিবর্তন দেখে মা-বাবা তাকে জিজ্ঞাস করলে ধর্ষণের বিষয়টি প্রকাশ করে। তখন চিকিৎসকের পরামর্শে অসহায় মা-বাবা মেয়ের শারীরিক পরীক্ষা-নিরীক্ষা করান। পরে চিকিৎসকের ব্যবস্থাপত্র অনুযায়ী  মা-বাবা জানতে পারেন মেয়েটি সাত মাসের অন্তঃসত্ব।

 

এদিকে গ্রামের কতিপয় মাতব্বর এ বিষয়টি ধামাচাপা দেওয়ার চেষ্টা করেন। এ বিয়টি মিমাংসার জন্য শুক্রবার সন্ধ্যায় উভয় পক্ষ বৈঠকে বসার কথা ছিল। কিন্ত থানা পুলিশ এ বিষয়টি জানতে পেয়ে শুক্রবার সকালে অভিযান চালিয়ে বখাটে বিদ্যুতকে তার বাড়ি থেকে আটক করেছে। এ ঘটনায় শুক্রবার সন্ধ্যার দিকে ধর্ষণের শিকার মেয়েটি বাদী হয়ে বিদ্যুত হোসেনের বিরুদ্ধে থানায় মামলা দায়ের করেছেন।

 

ধুনট থানার অফিসার ইনাচর্জ (ওসি) কৃপা সিন্ধু বালা বলেন, ধর্ষণ মামলায় বিদ্যুত হোসেনকে গ্রেপ্তার দেখিয়ে কারাগারে পাঠানো হয়েছে।

দৈনিক জামালপুর
দৈনিক জামালপুর