• বৃহস্পতিবার   ০৬ আগস্ট ২০২০ ||

  • শ্রাবণ ২২ ১৪২৭

  • || ১৬ জ্বিলহজ্জ ১৪৪১

দৈনিক জামালপুর
৩১

বিদেশে মাছ রপ্তানি করে বৈদেশিক মুদ্রা অর্জন করছি: প্রধানমন্ত্রী

দৈনিক জামালপুর

প্রকাশিত: ২৭ জুলাই ২০২০  

বাংলাদেশ সরকারের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, গত ১১ বছরে দেশে মাছের উৎপাদন ৫০ শতাংশ বেড়েছে। দেশ মাছ উৎপাদনে স্বয়ংসম্পূর্ণ, স্বাদু পানির মাছ উৎপাদন বৃদ্ধির হারে বিশ্বে দ্বিতীয় অবস্থানে উন্নীত হয়েছে। মৎস্য উৎপাদনে সব দিক দিয়েই বাংলাদেশ এগিয়ে যাচ্ছে। দেশের উৎপাদিত মাছ বিদেশে রপ্তানি করে বৈদেশিক মুদ্রা অর্জন করছি।

 

বুধবার (২২ জুলাই) সকালে জাতীয় মৎস সপ্তাহের উদ্বোধনের সময় এ কথা বলেন প্রধানমন্ত্রী। এবারে স্লোগান মাছ উৎপাদন বৃদ্ধি করি, সুখী সমৃদ্ধ দেশ গড়ি।

 

সকালে প্রধানমন্ত্রী গণভবনের পুকুরে মাছের পোনা ছাড়ার মাধ্যমে মৎস সপ্তাহ উদ্বোধন করেন। মাছ চাষে আরো উন্নত ও আধুনিক পদ্ধতি গ্রহণ করে দেশীয় মাছ রক্ষা করার আহবান জানান তিনি।

 

উল্লেখ্য, জাতিসংঘের খাদ্য ও কৃষি সংস্থার (এফএও) ‘দ্য স্টেট অব ওয়ার্ল্ড ফিশারিজ অ্যান্ড অ্যাকুয়াকালচার ২০২০’ শীর্ষক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, স্বাদু পানির মাছ বাড়ার হারে বাংলাদেশ বিশ্বে দ্বিতীয়।

 

ইন্দোনেশিয়ায় ১২ শতাংশ আর বাংলাদেশে এ হার ৯ শতাংশ। বাংলাদেশে কৃতিত্ব ইলিশের আর দেশি মাছ চাষে। ইলিশ মাছের উৎপাদন বর্তমানে পাঁচ লাখ টনেরও বেশি।

 

ইলিশে বিশ্বের মধ্যে বাংলাদেশ প্রথম। বিশ্বে মোট ইলিশের প্রায় ৮৫ শতাংশই উৎপাদিত হয় বাংলাদেশে। মৎস্য খাতে সম্ভাবনা আরও বাড়বে। বাংলাদেশের রয়েছে অপার সম্ভাবনাময় সমুদ্রসম্পদ।

 

এফএও’র তথ্য অনুযায়ী, গত বছর বিশ্বে প্রায় ১৮ কোটি টন মাছ উৎপাদিত হয়েছে। এর অর্ধেকেরও বেশি স্বাদু পানির মাছ। বাকিটা সামুদ্রিক মাছ। ২০১৭ সালেই স্বাদু পানির মাছ উৎপাদনে বাংলাদেশ পঞ্চম থেকে তৃতীয় স্থান লাভ করে।

 

এবারো সে অবস্থান ধরে রেখেছে। গত বছর প্রথম ও দ্বিতীয় হয়েছে যথাক্রমে চীন ও ভারত। চাষের মাছে বাংলাদেশের অবস্থানটি চীন, ভারত, ইন্দোনেশিয়া ও ভিয়েতনামের পরে।

দৈনিক জামালপুর
দৈনিক জামালপুর
বাণিজ্য বিভাগের পাঠকপ্রিয় খবর