• সোমবার   ৩০ নভেম্বর ২০২০ ||

  • অগ্রাহায়ণ ১৬ ১৪২৭

  • || ১৪ রবিউস সানি ১৪৪২

দৈনিক জামালপুর

বিনোদনে জামালপুর; লুইস ভিলেজ রিসোর্ট এন্ড পার্ক

দৈনিক জামালপুর

প্রকাশিত: ১৮ অক্টোবর ২০২০  

আামদের জীবনের প্রতিটা মুহূর্ত নির্দিষ্ট কাঠামোতে বন্দী। শৈশব থেকে যৌবন পর্যন্ত আমাদের কেটে যায় শিখতে শিখতে, যেখানের ছুটিগুলো খেলাচ্ছলে কেটে যায়, প্রজন্মের পর প্রজন্ম ধরে এই ধারাই চলে আসছে। যৌবনে গিয়ে আমরা পা রাখি কর্মজীবনে। আর এই কর্মব্যস্ত জীবনে একমাত্র  ছুটির দিন কে রাঙাতে অথবা সারা সপ্তাহের ক্লান্তি দূর করতে প্রত্যেকে পরিবার পরিজনের সাথে একান্তে আনন্দ মুখর সময় কাটাতে চায়। 

লুইস ভিলেজ রিসোর্ট এন্ড পার্কের একাংশ

এজন্য অধিকাংশ মানুষের পছন্দ রিসোর্ট এবং পার্ক সমূহ। মানুষের নির্মল আনন্দের ব্যবস্থা করতে জামালপুর শহরেও গড়ে তোলা হয়েছে অত্যাধুনিক থিম পার্ক এবং রিসোর্ট।

লুইস ভিলেজ রিসোর্ট এন্ড পার্কে ছোট বড়দের জন্য রয়েছে বিনোদন
লুইস ভিলেজ রিসোর্ট এন্ড পার্কে ছোট বড়দের জন্য রয়েছে বিনোদন


লুইস ভিলেজ রিসোর্ট এন্ড পার্ক নামের রিসোর্টটি গড়ে তোলা হয়েছে জামালপুর শহরের প্রাণকেন্দ্র বেলাটিয়া এলাকায়। রাশিয়ার মস্কো প্রবাসী আতিকুর রহমান লুইস এর ভ্রমন পিয়াসি উচ্চমান সম্পন্ন রুচিবোধ ও পরিবেশ বান্ধব ধারণায় এটি প্রতিষ্ঠিত। 

লুইস ভিলেজ রিসোর্ট এন্ড পার্কে প্রতিদিনই অনেক ভ্রমন পিপাসু আসছে বিনোদনের জন্য
লুইস ভিলেজ রিসোর্ট এন্ড পার্কে প্রতিদিনই অনেক ভ্রমন পিপাসু আসছে বিনোদনের জন্য


এই পার্কটি বৃহত্তর ময়মনসিংহ বিভাগের অন্যতম আধুনিক বিনোদন কেন্দ্র হিসেবে পরিচিত। প্রায় ১০ একর জমির ওপর ২০১৬ সালে পার্কটি গড়ে তোলা হয়। গ্রামীণ পরিবেশের মাঝে গড়ে ওঠা এই পার্কটিতে বিরাজ করে নির্মল এক সবুজাভ পরিবেশ। 

আরও পড়ুন: মেলান্দহের গান্ধী আশ্রম: ইতিহাসের প্রাণকেন্দ্র ও বাতিঘর

চারদিকে ছড়িয়ে ছিটিয়ে থাকা গাছপালা পার্কটিকে আরও মনোরম ও আকর্ষণীয় করে তুলেছে। 

লুইস ভিলেজ রিসোর্ট এন্ড পার্কে শিশুদের বিনোদনের জন্য
লুইস ভিলেজ রিসোর্ট এন্ড পার্ক শিশুদের বিনোদনের জন্য


এ বিনোদন কেন্দ্রটি ইতোমধ্যেই জামালপুর ছাড়িয়ে রাজধানী ঢাকাসহ দেশের বিভিন্ন অঞ্চলের ভ্রমন পিয়াসিদের নজর কেড়েছে।

লুইস ভিলেজ রিসোর্ট এন্ড পার্ক

শিশু-কিশোর থেকে শুরু করে সব বয়সী মানুষের জন্য পার্কটি নানা রকম বিনোদনের ব্যবস্থা করে রেখেছে। লুইস ভিলেজ পার্কে বিনোদনের জন্য বাম্পার কার, মেরী গো রাউন্ড,সুইং চেয়ার,মিনি ট্রেন,ফ্যামিলি ট্রেন,ওয়ান্ডার হুইল, জেড কোস্টার,কফি কাপসহ অত্যাধুনিক আরো ১৪টি রাইডের ব্যবস্থা। সম্পূর্ণ সবুজ এক চত্বরে গরে তোলা এই পার্কটিতে উন্নত রেস্টুরেন্ট, রেস্ট হাউজ, কনভেনশন সেন্টার সহ ফাস্ট ফুড দোকান। রয়েছে একটি পুকুর এবং ওয়াটার রাইডের ব্যবস্থা।

লুইস ভিলেজ রিসোর্ট এন্ড পার্ক
লুইস ভিলেজ রিসোর্ট এন্ড পার্ক


যেকোন পারিবারিক কিংবা ব্যবসায়িক নানা প্রোগ্রাম এখানে এসে স্বাচ্ছন্দ্যে পালন করতে পারেন। এছাড়া এখানে এলে জামালপুরের খ্যাতি সম্পন্ন হস্ত শিল্পের দোকান ও পেয়ে যাবেন। পার্কটি প্রতিদিন সকাল ১০ টা থেকে রাত ৮ টা পর্যন্ত খোলা থাকে। এখানে প্রবেশ মূল্য মাত্র ১০০ টাকা।

 

লুইস ভিলেজ রিসোর্ট এন্ড পার্ক রয়েছে অনেক রাজহাঁস
লুইস ভিলেজ রিসোর্ট এন্ড পার্ক রয়েছে অনেক রাজহাঁস


যেভাবে যাবেন :

ঢাকা থেকে সড়ক ও রেলপথে জামালপুর যাওয়া যায়। সড়ক পথের চেয়ে এখানে রেলপথটিই বেশি আরামদায়ক ও সুবিধাজনক। ঢাকার কমলাপুর রেলস্টেশন হতে আন্তঃনগর তিস্তা এক্সপ্রেস, যমুনা এক্সপ্রেস, ব্রহ্মপুত্র এক্সপ্রেস, অগ্নিবীণা এক্সপ্রেস ট্রেনে জামালপুর যাওয়া যায়। আসন ভেদে ভাড়া সর্বোচ্চ ২৫০ টাকা।

 

এছাড়াও ঢাকার মহাখালী বাস স্টেশন হতে এনা, মহানগর ও রাজীব পরিবহণের বাস রয়েছে এই রুটে। ভাড়া ২৫০ থেকে ৩০০ টাকা। জামালপুর-টাঙ্গাইল মহাসড়কের পাশে শহর থেকে মাত্র দুই কিলোমিটার দূরে বেলাটিয়া এলাকায় স্থাপিত লুইস ভিলেজ রিসোর্ট এন্ড পার্ক।

দৈনিক জামালপুর
দৈনিক জামালপুর