• বৃহস্পতিবার   ১৩ আগস্ট ২০২০ ||

  • শ্রাবণ ২৯ ১৪২৭

  • || ২৩ জ্বিলহজ্জ ১৪৪১

দৈনিক জামালপুর
১৪৪

মিয়ানমার থেকে আমদানি করা হলো ৪১১ মেট্রিক টন পেঁয়াজ

দৈনিক জামালপুর

প্রকাশিত: ৯ জানুয়ারি ২০২০  

মিয়ানমার থেকে স্থানীয় ব্যবসায়ীরা পেঁয়াজ আমদানি অব্যাহত রেখেছেন। বুধবার একদিনে সাত ব্যবসায়ীর কাছে সাতটি ট্রলারে ৪১১ দশমিক ৫৯৯ মেট্রিক টন পেঁয়াজ টেকনাফ স্থলবন্দরে এসেছে।
চলতি জানুয়ারি মাসে সাত দফায় মিয়ানমার থেকে নৌপথে এক হাজার ৩০৩ দশমিক ১৬৬ মেট্রিক টন পেঁয়াজ আমদানি করা হয়েছে। 


 
বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন টেকনাফ স্থলবন্দরের কাস্টমস সুপার আফসার উদ্দিন।

তিনি বলেন, গত বছরের ২৯ সেপ্টেম্বর থেকে পেঁয়াজ রফতানি বন্ধ করে দেয় ভারত। এরপর ৩০ সেপ্টেম্বর মিয়ানমার থেকে প্রথম চালানে ৬৫০ টন পেঁয়াজ আসে। এরপর থেকে বুধবার বিকেল পর্যন্ত মিয়ানমার থেকে ৬২ হাজার ১১ দশমিক ৪৭৫ টন পেঁয়াজ আমদানি করা হয়।

সকালে ব্যবসায়ী মো. নাছিরের ৪২ দশমিক ৭৭১, মো. সজিবের ৪০ দশমিক ৩৫১, ছৈয়দ করিমের ১৬২ দশমিক ৮৫৬, যদু বাবুর ১০ দশমিক ৮১৭, মো. আব্দুল জব্বারের ৮০ দশমিক ৪১৬, মো. কামরুলের ৩ দশমিক ১০৩, বাহদুরের ৭১ দশমিক ২৮৫ মেট্রিকটন পেঁয়াজ স্থলবন্দরের আসে। এসব পেঁয়াজ খালাস করে বিভিন্ন স্থানে সরবরাহ করা হচ্ছে। 

তিনি আরো বলেন, তবে দেশের স্বার্থে সংকট মোকাবিলায় পেঁয়াজ আমদানি বাড়াতে আরো বেশি উৎসাহিত করা হচ্ছে।

স্থলবন্দর পরিচালনাকারী প্রতিষ্ঠানের ইউনাইটেড ল্যান্ড পোর্ট টেকনাফ লিমিটেডের মহা-ব্যবস্থাপক জসিম উদ্দিন বলেন, স্থলবন্দর দিয়ে আগের তুলনায় মিয়ানমার থেকে পেঁয়াজ আমদানি বেড়েছে। বুধবার সন্ধ্যা ৭টা পর্যন্ত ৩১টি পেঁয়াজভর্তি ট্রাক দেশের বিভিন্ন বিভাগীয় শহরের উদ্দেশ্যে স্থলবন্দর ছেড়ে গেছে।

দৈনিক জামালপুর
দৈনিক জামালপুর
বাণিজ্য বিভাগের পাঠকপ্রিয় খবর