• শনিবার   ৩১ জুলাই ২০২১ ||

  • শ্রাবণ ১৬ ১৪২৮

  • || ২০ জ্বিলহজ্জ ১৪৪২

দৈনিক জামালপুর

ঘাটাইলে হাসেন আলীকে নতুন ঘর উপহার দিলেন আ`লীগ নেতা আজাদ

দৈনিক জামালপুর

প্রকাশিত: ২২ জুলাই ২০২১  

মুজিববর্ষ ও ঈদ উপহার হিসেবে নতুন ঘর উপহার পেলেন টাঙ্গাইলের ঘাটাইল পৌরসভার চান্দশি এলাকার হাসেন আলী (৯০)। ঘাটাইল উপজেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ন আহ্বায়ক ইঞ্জিনিয়ার মাসুদুর রহমান আজাদ এবং তার স্ত্রী কাজী সোহেলা আহমেদ দম্পতী সম্পূর্ণ নিজস্ব অর্থায়নে তাঁকে নতুন এই ঘর নির্মাণ করে দেন।

আজ মঙ্গলবার (২০ জুলাই) সকালে মাসুদুর রহমান আজাদ এবং তার স্ত্রী কাজী সোহেলা আহমেদ পৌরসভার চান্দশি মধ্যপাড়া এলাকায় হাসেন আলীর নবনির্মিত ঘরে উপস্থিত হন। সে সময় বয়োজ্যেষ্ঠ হাসেন আলী এবং তার স্ত্রী আবেগতাড়িত হয়ে পড়েন। এ সময় তারা এই ঘর নির্মাণ করে দেয়ার জন্য তাদের সাধুবাদ জানান।

জানা যায়, চান্দশি মধ্যপাড়া এলাকায় হাসেন আলী তার স্ত্রীকে নিয়ে অল্প একটু যায়গায় দীর্ঘদিন বসবাস করেন। কিন্তু সম্প্রতি তার বসতঘরটি ভেঙে বসবাসের অনুপযোগী হয়। নতুন ঘর নির্মাণের সামর্থ্য না থাকায় তারা স্থানীয় রাজনৈতিক ব্যক্তি ও সরকারের নানা যায়গায় যোগাযোগ করে ব্যর্থ হন। পরে বিষয়টি আওয়ামী লীগ নেতা মাসুদুর রহমান আজাদের দৃষ্টিগোচর হলে তিনি তাঁকে নতুন ঘর নির্মাণ করে দেয়ার আশ্বাস দিয়ে এক মাসের মধ্যেই তা বাস্তবায়ন করেন। গত এক সপ্তাহ যাবত তারা নতুন ঘরে বসবাস শুরু করেছেন বলে জানা গেছে।

লক্ষাধিক টাকা ব্যয়ে নতুন এই টিনের ঘরের মেঝে পাকা করে দিয়ে তাতে বৈদ্যুতিক লাইট ফ্যানও লাগিয়ে দেয়া হয়েছে।

ঘাটাইল উপজেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ন আহ্বায়ক ইঞ্জিনিয়ার মাসুদুর রহমান আজাদ জানান, ঘাটাইল পৌরসভার চান্দশি মধ্যপাড়া এলাকার হাসেন আলী অত্যন্ত অসহায়। তাঁর বসতভিটায় একটি ঘর থাকলেও সম্প্রতি তা ব্যবহারের অনুপযোগী হয়ে পড়ে। সামান্য বৃষ্টি হলেই ঘরে পানি ঢুকত এবং বজ্রপাতের সময় তারা ভয়ে চকির নীচে আশ্রয় নিতেন। এদিকে সন্তানরা তার বাবা-মায়ের কোনো খোঁজ খবর নেন না। হাসেন আলীর এই অসহায়ত্বের সংবাদ পেয়ে আমি এবং আমার স্ত্রী আমাদের নিজস্ব অর্থায়নে একটি থাকার ঘর নির্মাণ করে দিয়েছি। সবাই যদি এভাবে একটা অসহায় পরিবারে সহযোগিতা করেন তাহলে দেশে গৃহহীন বলতে কোন কিছু থাকবে না বলে মন্তব্য করেন তিনি।

নতুন ঘর পেয়ে আবেগআপ্লুত হাসেন আলী বলেন, অনেক খুশি হয়েছি। আমরা দুই বুড়াবুড়ি এখন এই ঘরে শান্তিতে বসবাস করতে পারবো। এখন রোদবৃষ্টিতে আমাদের আর ঝামেলা পোহাতে হবে না। মাসুদুর রহমান আজাদ এবং তার স্ত্রী কাজী সোহেলা আহমেদ যেন এভাবে অসহায়দের প্রতি সহযোগিতায় এগিয়ে আসতে পারেন সে জন্য দোয়া করেন তিনি।

দৈনিক জামালপুর
দৈনিক জামালপুর