• মঙ্গলবার   ২৭ সেপ্টেম্বর ২০২২ ||

  • আশ্বিন ১২ ১৪২৯

  • || ২৯ সফর ১৪৪৪

দৈনিক জামালপুর
সর্বশেষ:
নৌকা ডুবি দূর্ঘটনায় নিহতদের পরিবারের পাশে ধর্ম প্রতিমন্ত্রী নন্দীগ্রাম থানার ইন্সপেক্টর তদন্ত আশরাফুল সারিয়াকান্দি বদলি তিন সপ্তাহে এলো ১২৬ কোটি ৫৪ লাখ ডলার রেমিট্যান্স দুর্গাপূজায় নিশ্ছিদ্র নিরাপত্তা নিশ্চিতের নির্দেশ আইজিপির ইভিএম নিয়ে ‘ভ্রান্ত’ ধারণা দূর করতে ব্যাপক প্রচারণা চালাবে ইসি প্রধানমন্ত্রীকে নিয়ে তথ্যচিত্র ‘শেখ হাসিনা: আ ট্রু লেজেন্ড’ আসছে ৯ অক্টোবর পবিত্র ঈদে মিলাদুন্নবী জামালপুরে আটটি পরিবারের চলাচলের রাস্তায় ঘর তুলল প্রতিবেশী উল্লাপাড়ার কুমার বিল থেকে কৃষকের ভাসমান লাশ উদ্ধার আর্মি এভিয়েশন গ্রুপে যুক্ত হলো কাসা-সি ২৯৫ ডব্লিউ সামরিক বিমান

সাজাপ্রাপ্ত খালেদা ও পলাতক তারেক নির্বাচনের অযোগ্য: সেতুমন্ত্রী

দৈনিক জামালপুর

প্রকাশিত: ১৫ সেপ্টেম্বর ২০২২  

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেছেন, বিএনপি চেয়ারপার্সন খালেদা জিয়া দুর্নীতির দায়ে সাজাপ্রাপ্ত। আর তারেক রহমান তো দণ্ডিত পলাতক আসামি। তারা আইনের দৃষ্টিতে নির্বাচনের অযোগ্য।
বৃহস্পতিবার নিজ বাসভবনে এক ব্রিফিংয়ে এসব কথা বলেন তিনি। 


মন্ত্রী বলেন, বিএনপি দেশ-বিদেশে স্বীকৃত সন্ত্রাসী দল। কানাডার আদালতেও বিএনপিকে সন্ত্রাসী দল হিসেবে চিহ্নিত করা হয়েছে। আওয়ামী লীগ মাটি ও মানুষের সংগঠন এবং জনগণের আস্থার ঠিকানা।

তিনি আরো বলেন, সন্ত্রাসবাদ ও সাম্প্রদায়িক অপশক্তির বিরুদ্ধে শেখ হাসিনা সরকার এবং আওয়ামী লীগের অবস্থান অত্যন্ত কঠোর। সন্ত্রাস তারাই করে, যারা জনবিচ্ছিন্ন এবং আন্দোলন ও নির্বাচনে ব্যর্থ। জনকল্যাণে যাদের কোনো ইতিবাচক কর্মসূচি থাকে না, তারাই সন্ত্রাস-ষড়যন্ত্রকে ক্ষমতায় যাওয়ার হাতিয়ার হিসেবে বেছে নেয়। বিএনপিও তাই করছে।

ওবায়দুল কাদের বলেন, প্রকৃতপক্ষে বিএনপি নির্বাচনকে ভয় পায়। শেখ হাসিনার জনপ্রিয়তা নিয়ে তাদের যত ভয়। বিএনপি হেরে যাওয়ার ভয়ে নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করতে দ্বিধাগ্রস্ত। আওয়ামী লীগ কখনো খালি মাঠে গোল দিতে চায় না। আওয়ামী লীগ চায় প্রতিদ্বন্দ্বিতাপূর্ণ নির্বাচন। সরকার সব দলের অংশগ্রহণমূলক নির্বাচনে বিশ্বাসী। নির্বাচনে অংশগ্রহণ সব দলের রাজনৈতিক অধিকার। কিন্তু বিএনপি পরাজয়ের ভীতিতে আক্রান্ত তাই নির্বাচনে আসে না।

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক বলেন, নির্বাচন কমিশনকে বিএনপি বিতর্কিত করতে চায়। নির্বাচন ব্যবস্থাকেও প্রশ্নবিদ্ধ করার উদ্দেশ্যমূলক অপতৎপরতা চালাচ্ছে। বিএনপির সময় কমিশন গঠনে তারা কি কারো মতামত নিয়েছিল? কোনো রাজনৈতিক দলের সঙ্গে সংলাপ করেছিল? তৎকালীন প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশেই সাদেক আলী ও আজিজ মার্কা আজ্ঞাবহ নির্বাচন কমিশন গঠিত হয়েছিল। সোয়া এক কোটি ভুয়া ভোটার তালিকাভুক্ত করে নির্বাচনকে প্রভাবিত করার অপচেষ্টা করেছিল। দলীয় ক্যাডারদের নির্বাচন কমিশনে নিয়োগ দিয়েছিল।

দৈনিক জামালপুর
দৈনিক জামালপুর