• মঙ্গলবার   ২৭ সেপ্টেম্বর ২০২২ ||

  • আশ্বিন ১২ ১৪২৯

  • || ২৯ সফর ১৪৪৪

দৈনিক জামালপুর
সর্বশেষ:
নৌকা ডুবি দূর্ঘটনায় নিহতদের পরিবারের পাশে ধর্ম প্রতিমন্ত্রী নন্দীগ্রাম থানার ইন্সপেক্টর তদন্ত আশরাফুল সারিয়াকান্দি বদলি তিন সপ্তাহে এলো ১২৬ কোটি ৫৪ লাখ ডলার রেমিট্যান্স দুর্গাপূজায় নিশ্ছিদ্র নিরাপত্তা নিশ্চিতের নির্দেশ আইজিপির ইভিএম নিয়ে ‘ভ্রান্ত’ ধারণা দূর করতে ব্যাপক প্রচারণা চালাবে ইসি প্রধানমন্ত্রীকে নিয়ে তথ্যচিত্র ‘শেখ হাসিনা: আ ট্রু লেজেন্ড’ আসছে ৯ অক্টোবর পবিত্র ঈদে মিলাদুন্নবী জামালপুরে আটটি পরিবারের চলাচলের রাস্তায় ঘর তুলল প্রতিবেশী উল্লাপাড়ার কুমার বিল থেকে কৃষকের ভাসমান লাশ উদ্ধার আর্মি এভিয়েশন গ্রুপে যুক্ত হলো কাসা-সি ২৯৫ ডব্লিউ সামরিক বিমান

মালয়েশিয়ায় চালু হচ্ছে প্রিমিয়াম ভিসা

দৈনিক জামালপুর

প্রকাশিত: ৩ সেপ্টেম্বর ২০২২  

বিদেশি (ধনী) বিনিয়োগকারীদের আকৃষ্ট করতে মালয়েশিয়ায় চালু হচ্ছে প্রিমিয়াম ভিসা। আগামী ১ অক্টোবর থেকে এ ভিসার আবেদন করা যাবে। বৃহস্পতিবার এমন একটি নোটিশ প্রকাশ করেছে সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয়। নোটিশে বলা হয়েছে- যারা যোগ্য তারা সব বয়সের ব্যক্তি যাদের অফশোর আয় মাসে কমপক্ষে ৪০ হাজার বা বছরে ৪ লাখ ৮০ হাজার রিঙ্গিত থাকতে হবে।


সিঙ্গাপুর, থাইল্যান্ড এবং পর্তুগালের গোল্ডেন ভিসা উদ্যোগের মতো দেশে স্থায়ীভাবে বসবাসে ধনী বিনিয়োগকারীদের আকৃষ্ট করার জন্য সরকার একটি নতুন প্রিমিয়াম ভিসা প্রোগ্রাম চালু করেছে।

১ সেপ্টেম্বর বৃহস্পতিবার দেশটির স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী হামজাহ জয়নুদিন এক বিবৃতিতে বলেছেন, প্রিমিয়াম ভিসা প্রোগ্রাম (পিভিআইপি) মালয়েশিয়ার সাথে কোনো কূটনৈতিক সম্পর্ক নেই- এমন দেশগুলো ছাড়া সমস্ত দেশের ধনী ব্যক্তিদের জন্য উন্মুক্ত থাকবে। আবেদনকারীদের সংখ্যা মালয়েশিয়ার জনসংখ্যার ১% এ সীমাবদ্ধ করা হবে।

আবেদনকারীদের অবশ্যই তাদের ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্টে কমপক্ষে ১ মিলিয়ন থাকতে হবে এবং সম্পত্তি কেনার জন্য বা চিকিৎসা ও শিক্ষাগত খরচের জন্য এক বছর পরে সেই পরিমাণের ৫০% তুলে নেওয়ার অনুমতি  রয়েছে।

সফল আবেদনকারীদের তাদের স্বামী/স্ত্রী, সন্তান, পিতামাতা, শ্বশুরবাড়ি এবং গৃহকর্মীকে বিদ্যমান অভিবাসন আইনসাপেক্ষে নির্ভরশীল হিসেবে আনতে অনুমতি দেওয়া হয়।

হামজাহ বলেন, আবেদনকারীদের এককালীন ২ লাখ রিঙ্গিত অংশগ্রহণ ফি দিতে হবে এবং  প্রতিটি আবেদনে নির্ভরশীলের জন্য এককালীন ১ লাখ রিঙ্গিত ফি ধার্য করা হবে।

২১ বছরের বেশি বয়সী অংশগ্রহণকারীদের শিশুরা নির্ভরশীল বলে বিবেচিত হবে না এবং দেশে থাকার জন্য অবশ্যই পিভিআইপি অংশগ্রহণকারী হওয়ার জন্য আবেদন করতে হবে।

তিনি আরও বলেন, আবেদনকারী বর্তমানে যে দেশে বসবাস করছেন সেখানকার কর্তৃপক্ষের কাছ থেকে ভালো আচরণের একটি পত্র জমা দিতে হবে। পিভিআইপি ২০ বছরের জন্য প্রযোজ্য, তবে প্রতি পাঁচ বছরে একবার পুনর্নবীকরণ করা হবে। এই প্রক্রিয়ার মধ্যে রয়েছে একটি বৈধ পাসপোর্ট থাকা, ব্যক্তিগত তথ্য আপডেট করা, মালয়েশিয়ায় পুলিশের স্ক্রিনিং এবং চিকিৎসা পরীক্ষা।

আবেদনকারী এবং নির্ভরশীলদের অবশ্যই স্বাস্থ্য বীমা থাকতে হবে। পিভিআইপির সুবিধার অংশ হিসেবে অংশগ্রহণকারীদের সম্পত্তি কেনার (রাষ্ট্রীয় আইনসাপেক্ষে), অধ্যয়ন, বিনিয়োগ এবং ব্যবসা পরিচালনা করার অনুমতি দেওয়া হবে।

মন্ত্রণালয় আত্মবিশ্বাসী পিভিআইপি বিশ্বব্যাপী টাইকুনদের আকর্ষণ করবে। সরকার প্রথম বছরে ১,০০০ অংশগ্রহণকারীদের টার্গেট করেছে; যারা অর্থনীতিতে ২০০ মিলিয়ন এবং ১ বিলিয়ন রিঙ্গিত স্থায়ী আমানতে অবদান রাখবে।

এ প্রোগ্রামটি আরও বেশি বিদেশি প্রত্যক্ষ বিনিয়োগ (এফডিআই) আঁকতে পারে; যা অর্থনীতিকে শক্তিশালী করতে পারে এবং মালয়েশিয়ানদের জন্য চাকরি তৈরি করতে পারে। রিঙ্গিতের চাহিদাও বাড়বে এবং এর মানও শক্তিশালী হবে- এমন আশা প্রকাশ করেছেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী হামজাহ জয়নুদিন।

দৈনিক জামালপুর
দৈনিক জামালপুর