• রোববার ১৬ জুন ২০২৪ ||

  • আষাঢ় ২ ১৪৩১

  • || ০৮ জ্বিলহজ্জ ১৪৪৫

দৈনিক জামালপুর

শেরপুরে ১৩বছর আত্মগোপনে থাকা শিশু ধর্ষণ মামলার আসামী আটক

দৈনিক জামালপুর

প্রকাশিত: ২৫ মে ২০২৩  

শেরপুর জেলার নকলা থানাধীন চাঞ্চল্যকর শিশু ধর্ষণ মামলায় ১৩ বছর আত্মগোপনে থাকা যাবজ্জীবন সাজাপ্রাপ্ত আসামীকে নারায়নগঞ্জ জেলার রুপগঞ্জ থানা এলাকা হতে গ্রেফতার করেছে র‌্যাব-১৪, সিপিসি-১, জামালপুর ক্যাম্প।

বৃহস্পতিবার গভীর রাতে নারায়নগঞ্জ জেলার রুপগঞ্জ থানার বরপা এলাকা থেকে তাকে গ্রেপ্তার করা হয়। গ্রেপ্তারকৃত যুবক শেরপুর জেলার নকলা উপজেলার নয়াবাড়ী গ্রামের মৃত কলিম উদ্দিনের ছেলে।

র‌্যাবের প্রেস বিজ্ঞপ্তি থেকে জানা গেছে, ২০১০ সালের ১৮ মার্চ শিশুটি স্কুল ছুটির পর বাড়ী ফেরার পথে দুপুর আনুমানিক সাড়ে ১২টার দিকে বিদ্যালয় থেকে ২০০ গজ দূরে পাকা রাস্তার কালভার্টের নীচে নিয়ে ধর্ষণ করে পালিয়ে যায়। এ ঘটনায় ধর্ষিতার বাবা মো. আবু সাঈদ বাদী হয়ে নকলা থানায় মামলা দায়ের করে।

গত ২০২০ সালের ১৮ মার্চ আসামী মো. আল-আমিনের বিরুদ্ধে ২০০০ সালের নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনের ৯ (১) ধারায় অপরাধ সন্দেহাতীত ভাবে প্রমাণিত হওয়ায় তাকে যাবজ্জীবন সশ্রম কারাদন্ড ও ১০ হাজার  টাকা অর্থদন্ড অনাদায়ে আরো ৩ মাসের বিনাশ্রম কারাদন্ডে দন্ডিত করেন।
 

এ ঘটনার পর থেকেই আসামী মো. আল-আমিন ১৩ বছর দেশের বিভিন্ন স্থানে আত্মগোপনে  থাকার পাশাপাশি সে নারায়নগঞ্জ জেলার বিভিন্ন এলাকায় ইলেকট্রিক মিস্ত্রি এবং সিএনজি চালক হিসেবে জীবিকা নির্বাহ করে আসছিল।

বিভিন্ন তথ্য উপাত্ত সংগ্রহ ও বিশ্লেষণের মাধ্যমে আসামির অবস্থান সনাক্ত করে কোম্পানী কমান্ডার স্কোয়াড্রন লিডার আশিক উজ্জামানের নেতৃত্বে র‌্যাবের একটি অভিযানিক দল তাকে নারায়নগঞ্জ জেলার রুপগঞ্জ থানার বরপা এলাকা থেকে গ্রেপ্তার করে। পরে ২৫মে বৃহস্পতিবার দুপুরে গ্রেপ্তারকৃত আসামী মো. আল-আমিনকে উক্ত মামলায় নকলা থানায় হস্তান্তর করা হয়।

ধৃত আসামীকে সূত্রোক্ত মামলায় শেরপুর জেলায় নকলা থানায় হস্তান্তর করা হয়েছে। এ ধরণের অপরাধের বিরুদ্ধে র‌্যাবের অভিযান অব্যাহত থাকবে।  
 

দৈনিক জামালপুর
দৈনিক জামালপুর