• বুধবার ২২ মে ২০২৪ ||

  • জ্যৈষ্ঠ ৮ ১৪৩১

  • || ১৩ জ্বিলকদ ১৪৪৫

দৈনিক জামালপুর

মোতালেবের পেট থেকে বের হলো আরো ৮ কলম

দৈনিক জামালপুর

প্রকাশিত: ৩০ মে ২০২৩  

অস্ত্রোপচার ছাড়াই মানসিক প্রতিবন্ধী আব্দুল মোতালেবের পেট থেকে আরো আটটি কলম বের করা হয়েছে। সোমবার দুপুরে সিরাজগঞ্জ শহীদ এম মনসুর আলী মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতালে তার পেট থেকে এন্ডোস্কোপির মাধ্যমে কলমগুলো বের করে আনেন চিকিৎসকরা।
এ নিয়ে দুই দফায় অস্ত্রোপচার ছাড়াই ২৩টি কলম বের করা হলো ঐ রোগীর পেট থেকে। এর আগে বৃহস্পতিবার ঐ রোগীর পেট থেকে ১৫টি কলম বের করা হয়।


মোতালেব হোসেন সিরাজগঞ্জের বেলকুচি উপজেলার খুকনি আটার দাগ গ্রামের মৃত আব্দুর রহমানের ছেলে। মোতালেব ৪-৫ বছর ধরে এসব কলম গিলে খেয়েছেন বলে চিকিৎসকদের ধারণা।

শহীদ এম মনসুর আলী মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতালের সার্জারি বিভাগের প্রধান ও এন্ডোস্কোপি করা চিকিৎসক ডা. জাহিদুল ইসলাম ও কনসালটেন্ট ডা. আমিনুল ইসলাম খান জানান, সোমবার বেলা সাড়ে ১১টা থেকে শুরু করে প্রায় এক ঘণ্টার প্রচেষ্টায় এন্ডোস্কোপির মাধ্যমে তার পেট থেকে আরো আটটি কলম বের করা হয়েছে।


মোতালেবের মা লাইলী বেগম বলেন, এক বছর ধরে আমার ছেলে পেটের ব্যথায় ভুগছিল। বিভিন্ন হাসপাতালে চিকিৎসা করার পরও সে সুস্থ হয়নি। ১৫ দিন আগে সমস্যা আরো বাড়ে তার।  তখন সে খেতে পারতো না, খালি বমি করতো। এ কারণে তাকে এ হাসপাতালে আনা হয়। এখানে আনার পর তাকে পরীক্ষা-নিরীক্ষা করে পেটের মধ্য থেকে কলমগুলো বের করে এনেছেন চিকিৎসকরা। ১২ বছর ধরে আমার ছেলে মানসিক রোগী। তাকে মানসিক চিকিৎসকও দেখানো হয়েছে। সে কলমগুলো না বুঝেই খেয়ে ফেলেছে। 

শহীদ এম মনসুর আলী মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতালের পরিচালক সাইফুল ইসলাম বলেন, প্রথম দিন তার পেট থেকে ১৫টি কলম বের করা হলেও আজ আরো আটটি কলম বের করা হয়েছে। বাংলাদেশে এমন সাফল্য এটাই প্রথম। 


গত বৃহস্পতিবার দেশে প্রথমবারের মতো অপারেশন ছাড়াই এন্ডোস্কোপির মাধ্যমে এক যুবকের পেটের ভেতর থেকে ১৫টি আস্ত কলম বের করেছেন চিকিৎসকরা। এই অসম্ভবকে সম্ভব করেন সিরাজগঞ্জ শহীদ এম মনসুর আলী মেডিকেল কলেজ অ্যান্ড হাসপাতালের সার্জারি বিভাগের এক দল চিকিৎসক।

দৈনিক জামালপুর
দৈনিক জামালপুর