• রোববার ১৬ জুন ২০২৪ ||

  • আষাঢ় ২ ১৪৩১

  • || ০৮ জ্বিলহজ্জ ১৪৪৫

দৈনিক জামালপুর

ভতিচ্ছুদের সহায়তায় নিবেদিত যারা

দৈনিক জামালপুর

প্রকাশিত: ২১ মে ২০২৩  

আজ থেকে তৃতীয়বারের মত শুরু হয়েছে ২২টি সাধারণ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের গুচ্ছ ভর্তি পরীক্ষা। শনিবার (২০ মে) মানবিক বিভাগের পরীক্ষার মাধ্যমে শুরু হলো এ বছরের গুচ্ছ ভর্তি পরীক্ষা। জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় কেন্দ্রসহ এর অধীনে তিনটি উপকেন্দ্রে ২১ হাজার শিক্ষার্থী অংশগ্রহণ করে পরীক্ষায়। তাদের সহায়তায় জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় কেন্দ্রে উপস্থিত ছিল বিএনসিসি, স্কাউট, রেঞ্জার, ছাত্রকল্যাণ সমিতি, ছাত্রলীগসহ বিভিন্ন সংগঠন। ভর্তি পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করা শিক্ষার্থীদের সহযোগিতায় বিভিন্ন পদক্ষেপ গ্রহণ করে সংগঠনগুলো।
সরেজমিনে দেখা যায়, সকাল থেকে পরীক্ষা কেন্দ্রে আসতে শুরু করে শিক্ষার্থী অভিভাবকরা। শুধুমাত্র জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় কেন্দ্রে পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করে ১২ হাজার ৮৪৫ জন শিক্ষার্থী। সকাল থেকে ক্যাম্পাস আঙ্গিনাই ভিড় জমতে থাকে। শিক্ষার্থী অভিভাবকদের সহায়তায় সব সংগঠন বিভিন্ন ধরনের কার্যক্রম পরিচালনা করে।

বিএনসিসি শিক্ষার্থীদের তাদের আসন, বিল্ডিং, রুলস-রেগুলেশন বুঝিয়ে দেওয়া, স্কাউট, রোভার, রেঞ্জার ক্যাম্পাসে পরিবেশ পরিস্থিতির সার্বিক দিক নিয়ন্ত্রণ, ছাত্রকল্যাণগুলো ক্যাম্পাসের ভিক্টোরিয়া পার্ক সংলগ্ন এলাকায় ডেস্ক বসিয়ে স্ব স্ব এলাকা থেকে আশা শিক্ষার্থীদের পানি, স্যালাইন, অভিভাবকদের বসার ব্যবস্থা করেছে। তাছাড়া জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রলীগের পক্ষ থেকে জয় বাংলা বাইক সার্ভিসসহ ছাত্রছাত্রীদের সার্বিক বিষয়ে সহযোগিতা প্রদান করে। 

শিক্ষার্থীদের সহায়তা প্রদান প্রসঙ্গে জবি বিএনসিসি প্লাটুনের ক্যাডেট ইনচার্জ স্বপন মিয়া বলেন, আমরা আজ সর্বমোট ৩০ জন ক্যাডেট ভর্তি পরীক্ষায় দায়িত্ব পালন করেছি। সার্বিক পরিস্থিতি শিক্ষার্থীদের আসন, বিল্ডিং দেখিয়ে দেওয়া, পরীক্ষা সম্পর্কিত নিয়ম কানুন তাদেরকে বুঝিয়ে দেওয়া। যেসব জিনিস নিয়ে পরীক্ষা কেন্দ্রে প্রবেশে নিষেধ সেগুলো শিক্ষার্থীদের কাছে আছে কিনা সেগুলো চেক করা, ইত্যাদি কাজ সম্পন্ন করেছি। 

জয় বাংলা বাইক সার্ভিস নিয়ে জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক এস এম আক্তার হোসাইন বলেন, কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের নির্দেশনা অনুযায়ী জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় সহ ২২ বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি পরীক্ষা দিতে আসা পরীক্ষার্থীদের সব ধরনের সুযোগ সুবিধার ব্যবস্থা করেছে বিশ্ববিদ্যালয়ের শাখা ছাত্রলীগ। সে নির্দেশনা অনুযায়ী জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রলীগও পরীক্ষা দিতে আসা শিক্ষার্থীদের ব্যাগ রাখা, ইলেকট্রনিকস ডিভাইস নিরাপদে রাখার ব্যবস্থা করেছি। এছাড়াও জেলা ছাত্রকল্যাণ কমিটিকে নির্দেশনা দিয়ে দিয়েছি তারাও যেন সার্বিক সহযোগীতা করে পরীক্ষার্থীদের।

জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় রোভার স্কাউট গ্রুপের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক এস. এম. শাহাদাত হোসেন অনু বলেন, রোভার স্কাউটের মূল মটো সেবা। এই সেবার লক্ষ্যে ভর্তি পরীক্ষায় সব সময় পরীক্ষার্থীদের পাশে জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় রোভার স্কাউট গ্রুপ এগিয়ে আসে। যেকোনো প্রয়োজনে রোভার স্কাউটের সদস্যরা সর্বোচ্চ সেবা প্রদান করে। জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় রোভার স্কাউট গ্রুপ পরীক্ষার্থীদের সহায়তা প্রদানে সচেষ্ট।

দৈনিক জামালপুর
দৈনিক জামালপুর