• বৃহস্পতিবার ০৫ অক্টোবর ২০২৩ ||

  • আশ্বিন ১৯ ১৪৩০

  • || ১৮ রবিউল আউয়াল ১৪৪৫

দৈনিক জামালপুর

লাফিয়ে লাফিয়ে কমবে বাড়ির ইলেকট্রিক বিল

দৈনিক জামালপুর

প্রকাশিত: ৫ সেপ্টেম্বর ২০২৩  

ইলেকট্রিক বিল কমাতে সকলেই চান। অনেকে ঘরে বসে বিদ্যুৎ বিল কমাতে নানা ব্যবস্থা নেন। অনেক সময় ফ্যান ও টিভি ব্যবহার কমিয়ে দেন। কিন্তু এসবের চক্করে অনেক সময়ে ছোট জিনিসগুলো লক্ষ্য করা যায় না। এর মধ্যে একটি হলো সুইচবোর্ডে ইনস্টল করা ইন্ডিকেটর।

এই সূচকের মাধ্যমে আমরা ঘরে বিদ্যুৎ আছে কিনা, সেটার ইঙ্গিত পাই। যখন এই সূচকে আলো দেখতে পাওয়া যায় তখন বোঝা যায় যে ২৪ ঘণ্টার জন্য আলোকিত থাকে। এটি সঠিকভাবে জ্বলতে শুরু করলেই অন্যান্য যন্ত্রপাতির সুইচ চালু করুন। পাওয়ার অন সিগন্যাল ছাড়া, বাড়িতে ইনভার্টার থাকলে, কিছু বোর্ডে ইনভার্টার সংযোগও করা হয়ে থাকতে পারে।

ফলে এর মাধ্যমে আপনি বুঝতে পারবেন বাড়িতে ইন্ডিকেটরগুলো কেমন কাজ করছে। এগুলো পরিবর্তনের মাধ্যমে আপনির বাড়ির ইলেকট্রির বিল কমাতে পারবেন এবং নিয়ন্ত্রণে রাখতে পারবেন।

সাধারণত রুম থেকে রান্নাঘর পর্যন্ত সব জায়গায় সুইচবোর্ডে ইন্ডিকেটর লাগানো থাকে। ভারতে সরবরাহ ভোল্টেজ হলো ২৩০-২৪০ ভোল্ট। এই ভোল্টেজের একটি সূচক প্রতি ঘণ্টায় প্রায় ০.৩ থেকে ০.৫ ওয়াট খরচ করে। ধরুন, আপনার বাড়িতে ২৪ ঘণ্টা বিদ্যুৎ চলে। আপনার বাড়িতে যদি তিনটি রুম, একটি রান্নাঘর এবং দুটি বাথরুম এবং প্রায় ১০টি সুইচবোর্ড থাকলে ৭২ ওয়াট বিদ্যুৎ খরচ করবে।

অনেক সময় ঝড় হলে বাড়িতে লাগানো বৈদ্যুতিক যন্ত্রপাতি পুড়ে যাওয়ার সম্ভাবনা থাকে। সেই সময়ে সমস্ত বৈদ্যুতিক যন্ত্রপাতি বন্ধ করে এই ছোট ইন্ডকেটরের সাহায্য নেওয়া যেতে পারে। এমন পরিস্থিতিতে এই সূচকটি বলে দিতে পারে আপনার বাড়িতে বিদ্যুৎ আছে কি না। যখনই বিদ্যুৎ চলে আসবে তখনই আপনি একটি সংকেত পাবেন।

ভোল্টেজ পরিবর্তন হলে এটি কম বা বেশি জ্বলতে দেখবেন। যার দ্বারা আপনি জানতে পারবেন, যে বাড়িতে বিদ্যুৎ সরবরাহে পরিবর্তন হয়েছে। 

দৈনিক জামালপুর
দৈনিক জামালপুর