• রোববার ২১ এপ্রিল ২০২৪ ||

  • বৈশাখ ৮ ১৪৩১

  • || ১১ শাওয়াল ১৪৪৫

দৈনিক জামালপুর
সর্বশেষ:

পাঠ-প্রতিক্রিয়া: রক্তচাপ ও উচ্চ রক্তচাপ

দৈনিক জামালপুর

প্রকাশিত: ১ এপ্রিল ২০২৪  

অধ্যাপক ডা. মো. জাকির হোসেন বাংলাদেশের রোগীদের কাছে পরিচিত নাম। তিনি এদেশের অগ্রগণ্য মেডিসিন বিশেষজ্ঞ, চিকিৎসাবিজ্ঞানী, বাংলা একাডেমির ফেলো, রংপুর মেডিকেল কলেজের সাবেক অধ্যক্ষ। 

বর্তমানে তিনি বগুড়ার টিএমএসএস মেডিকেল কলেজে অধ্যক্ষের দায়িত্ব পালন করছেন। তিনি সুদীর্ঘ চিকিৎসকজীবনে উচ্চ রক্তচাপ রোগীদের নানান সমস্যা দেখেছেন। নীরব ঘাতক হিসেবে পরিচিতি উচ্চ রক্তচাপ (হাইপারটেনশন)। এর প্রভাবে স্ট্রোক, হার্ট অ্যাটাক, কিডনি ফেইলিউর প্রভৃতি মারাত্মক রোগে প্রাণ হারিয়ে এবং চিকিৎসা নিতে গিয়ে অনেক মানুষ নিঃস্ব হচ্ছে।
এ রোগের ভয়াবহতা ও করণীয় বিষয়ে জনসাধারণের মধ্যে সচেতনতা তৈরির মাধ্যমে যেকোনো ব্যক্তি সুস্থভাবে জীবনযাপন করতে পারে। এরই ধারাবাহিকতায় ডা. মো. জাকির হোসেন উচ্চ রক্তচাপ রোগীদের বিনামূল্যে মানসম্মত চিকিৎসাসেবা দেওয়া ও জনগণকে সচেতন করতে রংপুরে হাইপারটেনশন এ্যাÐ রিসার্চ সেন্টার প্রতিষ্ঠা করেছেন। এ প্রতিষ্ঠানটির মাধ্যমে তিনি উচ্চ রক্তচাপ ও ডায়বেটিস রোগীদের কমিউনিটি লেবেলে প্রাথমিক পর্যায়ে রোগটি শনাক্ত করছেন এবং কার্যকর পদক্ষেপ নিয়েছেন। এর ফলে স্টোক, অন্ধত্ব, হার্ট অ্যাটাক, কিডনি ফেইল্যুরের মতো নানাবিধ জটিলতা থেকে অসংখ্য রোগী বেঁচে যাচ্ছেন। 
উচ্চ রক্তচাপ বা হাইপারটেনশন রোগটি ননকমিউনিক্যাল ডিজিজ (Noncommuicable diseases or NCDs) বা অসংক্রামক ব্যাধিগুলোর অন্তর্ভুক্ত রোগের মধ্যে অন্যতম। সারা বিশে^ আশঙ্কাজনক হারে এ রোগটি বাড়ছে। এই অসংক্রামক ব্যাধিটি উপসর্গবিহীন নীরব ঘাতক হিসেবে পরিচিত। এই রোগটি অজান্তেই কোটি মানুষের দেহে নীরবে শরীরে বাসা বেঁধে মৃত্যুর দিকে ঠেলে দেয়। লক্ষণ প্রকাশের পূর্বেই এটি আত্মপ্রকাশ করে। ২০০৯ সালে বিশ^ স¦াস্থ্য সংস্থা এই রোগটিকে নীরব ঘাতক হিসেবে আখ্যায়িত করেছে। জনসচেতনতার লক্ষ্যে প্রতি বছর ১৭ই মে বিশ^ উচ্চ রক্তচাপ দিবস পালিত হয়।

বাংলাদেশে এক-চতুর্থাংশ মানুষ এ রোগে ভুগছেন বলে চিকিৎসকেরা মনে করছেন। আর তাতে পুরুষের চেয়ে নারীরা বেশি ভুগছেন। উচ্চ রক্তচাপ নিয়ন্ত্রণ করার মাধ্যমে এ রোগের ক্ষতিকর প্রভাবগুলোর ঝুঁকি থেকে অনেকাংশেই কমানো সম্ভব। এ রোগ হলে চিকিৎসকের স্মরণাপন্ন হয়ে উপদেশ ও নির্দেশমতো ঔষধ খেতে হবে এবং নিয়ম মানতেই হবে। কেউ কেউ চিকিৎসককে দেখানোর পর বিধিসম্মত সঠিক পন্থা অনুসরণ করতে পারেন না বা অনীহা করেন।
অধ্যাপক ডা. মো. জাকির হোসেন সুদীর্ঘ চিকিৎসক কর্মজীবনের অভিজ্ঞতার আলোকে এ বিষয়ে বাংলা ভাষায় প্রথম তিনি একটি বই লিখেছেন। বইটি হলো ‘রক্তচাপ ও উচ্চ রক্তচাপ’ (২০২৪)। এ বইটি মাসব্যাপী বাংলা একাডেমি অমর একুশে বইমেলা ২০২৪-এর ২৪তম দিনে প্রকাশিত হয়েছে। 
ইমেরিটাস অধ্যাপক ডা. এবিএম আবদুল্লাহ, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ের (বিএসএমএমইউ) মেডিসিন বিভাগের সাবেক বিভাগীয় প্রধান অধ্যাপক ডা. সৈয়দ আতিকুল হক, ঢাকা মেডিকেল কলেজের সাবেক অধ্যক্ষ অধ্যাপক ডা. খান আবুল কালাম আজাদ, ঢাকা মেডিকেল কলেজের মেডিসিন বিভাগের সাবেক বিভাগীয় প্রধান অধ্যাপক ডা. মো. মুজিবুর রহমান, কার্ডিওলজি বিভাগের বিভাগীয় প্রধান অধ্যাপক ডা. আব্দুল ওয়াদুদ চৌধুরী প্রমুখ খ্যাতিমান চিকিৎসক বইটির বিষয়বস্তু আলোচনায় ভ‚য়সী প্রশংসা করেন। বইটির প্রচ্ছদের প্রথম ফ্ল্যাপে ইমেরিটাস অধ্যাপক ডা. এবিএম আবদুল্লাহ সুলিখিত মন্তব্য রয়েছে।
বইটির প্রসঙ্গ-কথা অংশে গ্রন্থটির লেখক অধ্যাপক ডা. মো. জাকির হোসেন মেডিসিনের প্রিয় দুই কৃতী শিক্ষক অধ্যাপক এসজিএম চৌধুরী (মৃত্যু. ১৯৯৬) ও অধ্যাপক মুনির উদ্দিন আহমদ (জন্ম. ১৯৩০-মৃত্যু. ১.১.২০০৯)-কে কৃতজ্ঞতার সঙ্গে উল্লেখ করেছেন। মূলত জনসাধারণের কাছে উচ্চ রক্তচাপ রোগটির ব্যবস্থাপনা সম্পর্কে সঠিক তথ্য উপস্থাপনের মাধ্যমে পরোক্ষভাবে তাদেরকে উচ্চ রক্তচাপের চিকিৎসায় সম্পৃক্তকরণ ও সচেতনতা তৈরির করার উদ্দেশ্যেই তিনি এই বইটি লিখেছেন। 

এ বইটিতে মানুষের স্বাভাবিক রক্তচাপ, উচ্চ রক্তচাপ প্রতিরোধের উপায়, আক্রান্ত হয়ে গেলে চিকিৎসার ধরনসহ প্রাসঙ্গিক প্রায় সকল বিষয়ে সহজ ভাষায় জনসাধারণের জন্য প্রযোজ্য তথ্যগুলো তুলে ধরা হয়েছে। এই বইটি সবার জন্য সহায়ক। কারণ, উচ্চ রক্তচাপে আক্রান্ত রোগীরা যেমন এই বইটি পড়ে তাদের বøাড প্রেসার যথাযথভাবে নিয়ন্ত্রণে সচেষ্ট হতে পারবেন তেমনি যারা নিজেরা এই রোগে আক্রান্ত নন তারাও জীবনযাপনে ইতিবাচক পরিবর্তন আনার মাধ্যমে উচ্চ রক্তচাপ প্রতিরোধে সফল হতে পারবেন। এই বইটি উচ্চ রক্তচাপ সম্পর্কে জানতে আগ্রহী পাঠক ও রোগীদের কথা মনে রেখে সুবিন্যস্ত ও সহজভাবে বোধগম্য ভাষায় লেখা হয়েছে। রক্তচাপ কী, উচ্চ রক্তচাপের কারণ, ক্ষতিকর প্রভাব, উচ্চ রক্তচাপের রোগীর পরীক্ষা-নিরীক্ষা, চিকিৎসা প্রভৃতি গুরুত্বপূর্ণ বিষয় আলোচনার স্থান পেয়েছে এ বইয়ে। এ বই লেখার মূল উদ্দেশ্যই হচ্ছে জনসাধারণকে সচেতন করা, যাতে সঠিক চিকিৎসা নিতে পারেন ও উচ্চ রক্তচাপ প্রতিরোধে সঠিক নিয়ম মেনে চলেন। বাংলা ভাষায় প্রথম উচ্চ রক্তচাপ বিষয়ে এ বই পড়ে সাধারণ মানুষ, রোগী ও তাঁদের স্বজনরা যেমন উপকৃত হবেন, তেমনি চিকিৎসাবিজ্ঞানের ছাত্রছাত্রী ও চিকিৎসকদেরও উপকারে আসবে। রক্তচাপ ও উচ্চ রক্তচাপ (Ratachap o Uccha Ratacha) গ্রন্থটি প্রণেতা অধ্যাপক ডা. মো. জাকির হোসেন (Professor Dr. Md. Zakir Hossain), প্রকাশকাল : ফাল্গুন ১৪৩০/ ফেব্রæয়ারি ২০২৪, প্রচ্ছদ শিল্পী : আনিসুজ্জামান সোহেল, প্রকাশক : হাইপারটেনশন এ্যান্ড রিসার্চ সেন্টার, রংপুর, আকার : ডাবল ডিমাই, পৃষ্ঠা : ১৬৭, মূল্য : ৬০০ টাকা, আইএসবিএন : ৯৭৮-৯৮৪-৩৫-৯১১০-৪
উচ্চ রক্তচাপ এই মারাত¦ক ব্যাধি নির্মূল করা না গেলেও এর ভয়াবহ পরিণতি থেকে মুক্ত রাখতে এই বইটি উল্লেখযোগ্য অবদান রাখবে। 

আলোচক : গবেষক ও প্রাবন্ধিক

দৈনিক জামালপুর
দৈনিক জামালপুর