• বুধবার ২২ মে ২০২৪ ||

  • জ্যৈষ্ঠ ৮ ১৪৩১

  • || ১৩ জ্বিলকদ ১৪৪৫

দৈনিক জামালপুর

দেওয়ানগঞ্জে অনলাইন ভূমি সেবায় ব্যাপক সাড়া : কমছে দূর্ভোগ

দৈনিক জামালপুর

প্রকাশিত: ২৫ মে ২০২৩  

জামালপুর জেলার দেওয়ানগঞ্জে অনলাইনে ভূমি সেবায় কার্যক্রম শুরু হবার পর সেবা গ্রহিতাদের মধ্যে ব্যাপক আগ্রহ দেখা দিয়েছে। তারা এ কার্যক্রমে সন্তোষ প্রকাশ করে জমিজমার যাবতীয় কাজ কর্ম নিয়ে ছুটে আসছে সংশ্লিষ্ট ভূমি অফিস সমুহে। ঘরে বসে সেবা পেতে ১৬১২২ নাম্বারে কল করে সেবা নিতে শুরু করেছেন তারা। এনআইডি সহ জমির তথ্য প্রদান, কল সেন্টার কর্তৃক আবেদন দাখিল, মোবাইলে টোকেন নাম্বার প্রাপ্তি ও টোকেন নাম্বারে মোবাইলে ফি প্রদান, মোবাইলে আবেদন, আইডি ও ডেলিভারির তারিখ প্রাপ্তি, ডাক বিভাগের মাধ্যমে আবেদনকারীর ঠিকানায় খতিয়ান সরবরাহ, খতিয়ান (পর্চা), জমির ম্যাপ সংক্রান্ত যে কোন সেবার জন্য ১৬১২২ নাম্বারে কল করা সহ নানা সুবিধা পাওয়া যাচ্ছে। এ ছাড়াও ই নামজারি সংক্রান্ত তথ্যাদি ১৬১২২ নাম্বারে কল করে পাওয়া যাচ্ছে। সর্ব সাধারনের জন্য উন্মুক্ত করা হয়েছে বিশেষ কিছু তথ্য। যার স্বচ্ছতা এত ছিল না বহুদিন ধরে। এর মধ্যে মাত্র ২০ টাকায় ফরম পূরণ, নোটিশ জারীর ৫০ টাকা, রেকর্ড সংশোধন ফি ১ হাজার টাকা এবং নিউটেশন খতিয়ান ফি ১০০ টাকা মোট খরচ পড়ছে ১ হাজার ১৭০ টাকা। এ ছাড়া পাচ্ছেন আরও নানা সুবিধা। একান্ত আলাপ চারিতায় এ সাংবাদিকের কাছে এসব কথা বলেন, দেওয়ানগঞ্জ উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) মোঃ মাহবুব হাসান। তিনি আরও জানান, গত ২২ মে থেকে ২৮ মে পর্যন্ত দেওয়ানগঞ্জে ভূমি সেবা সপ্তাহ ২০২৩ শুরু হয়েছে। ঐ দিন এর উদ্বোধন করেন, জামালপুরের স্থানীয় সরকার বিভাগের উপ পরিচালক (ডিডিএলজি) সরকার আব্দুল্লাহ আল মামুন বাবু। উপজেলা নির্বাহী অফিসার কামরুন্নাহার শেফার সভাপতিত্বে আয়োজিত উদ্বোধনী সভায় বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, উপজেলা চেয়ারম্যান মোঃ সোলায়মান হোসেন, মেয়র শেখ মোহাম্মদ নুরুন্নবী অপু, দেওয়ানগঞ্জ মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ শ্যমল চন্দ্র ধর সহ সরকারি কর্মকর্তা, জন প্রতিনিধি, বীর মুক্তিযোদ্ধা, সাংবাদিক সহ স্থানীয় গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ। এসি ল্যান্ড মাহবুব হাসান আলাপ কালে আরও জানান, ভূমি সেবা অনলাইনে শুরু হওয়ায় সেবা গ্রহিতাদের মধ্যে দারুন আগ্রহ দেখা দিয়েছে। দালাল মুক্ত অবস্থায় নিজেরাই নিজেদের যাবতীয় কাজ সেড়ে নিতে ভূমি অফিসে আসছে। এতে সময় বাচছে, খরচ কমছে, হয়রানি বন্ধ হয়েছে তাদের। সম্পূর্ণ দালাল মুক্ত ঘোষনা করা হয়েছে ভূমি অফিস সমূহে। এ পরও কেউ ভূমি অফিসের কারও দ্বারা হয়রানির শিকার হলে আমার সাথে যোগাযোগের অনুরোধ জানিয়েছি। সুনির্দিষ্ট অভিযোগ পেলে আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়া হবে। তিনি বলেন, বর্তমান সরকার ভূমি সেবা সমূহকে একটি প্লাটফরমে আনার চিন্তা করছে। রেজিষ্ট্রেশন, জরিপ, নামজারি সহ প্রয়োজনীয় সকল কার্যক্রম যদি এক প্লাটফরমে আনা যায়, তবে জন ভোগান্তি অনেকাংশে কম যাবে, সুফল পেতে শুরু করবে মানুষ। স্মার্ট বাংলাদেশ গড়তে স্মার্ট সেবাদান অত্যন্ত জরুরী, আর তা শুরু হয়েছে অনলাইনে ভূমি সেবাদান কার্যক্রমের মাধ্যমে। সেবা গ্রহীতা দেশে বা বিদেশে অবস্থান করলেও সেখান থেকেই ই-সেবা গ্রহন করতে পারবেন। সীমানা বিরোধ শূণ্যের কোঠায় আনার চেষ্টা চালানো হচ্ছে। ডিজিটাল জরিপের কারনে ভবিষ্যতে মানুষ এর সুফল পাবে। সচেতন হতে হবে মানুষকে। ভূমি ক্রয়ের ২৮ দিনের মধ্যে নামজারি নিষ্পত্তি করতে হবে। এর ব্যত্যয় ঘটলে নানা সমস্যায় পড়তে হতে পারে। তিনি দুঃখ প্রকাশ করে বলেন, এ দেশের অনেক অসৎ ব্যক্তি অংশী বাদ দিয়ে নামজারী করেন। যা পড়ে সমস্যা দেখা দেয়। এ ক্ষেত্রে বন্টননামা থাকা অতি জরুরী। অনলাইনে ভূমি সেবা বিষয়ে দেওয়ানগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী অফিসার কামরুন্নাহার শেফা এ সাংবাদিককে জানান, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান সদ্য স্বাধীন বাংলাদেশে সর্ব প্রথম কৃষকদের সুবিধার্থে বিশেষ পদক্ষেপ নিয়েছিলেন। ২৫ বিঘা জমির খাজনা মওকুফ করেছিলেন। দেশকে সোনার বাংলায় রূপ দিতে পদক্ষেপ নিয়েছিলেন, যার ধারাবাহিকতা আজকের ডিজিটাল বাংলাদেশ গড়ার প্রত্যয়। অনলাইন সেবা দানে মানুষ নানা সুবিধা পাচ্ছে। এগিয়ে যাচ্ছে দেশ।

দৈনিক জামালপুর
দৈনিক জামালপুর