• রোববার ১৬ জুন ২০২৪ ||

  • আষাঢ় ২ ১৪৩১

  • || ০৮ জ্বিলহজ্জ ১৪৪৫

দৈনিক জামালপুর

সরিষাবাড়ীতে ট্রেনে অগ্নিসংযোগ: ৪২ জনের নামে মামলা, গ্রেফতার ১১ জন

দৈনিক জামালপুর

প্রকাশিত: ২০ নভেম্বর ২০২৩  

জামালপুরের সরিষাবাড়ীতে ট্রেনে অগ্নিসংযোগের ঘটনায় বিএনপির ৪২ জন নেতাকর্মীর নামে মামলা দায়ের করা হয়েছে। মামলায় এজাহারভূক্ত আসামী জামালপুর শহর বিএনপির সভাপতি লিয়াকত আলী ও অজ্ঞাত হিসেবে আরও ১০ জনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। গ্রেফতারকৃত সবাইকে কারাগারে পাঠিয়েছে আদালত।  

মামলা সূত্রে জানা গেছে, সরিষাবাড়ী রেলস্টেশনে গত শনিবার দিবাগত রাত ১টার দিকে আন্ত:নগর যমুনা এক্সপ্রেস ট্রেনে অগ্নিসংযোগ করে দুর্বৃত্তরা। পরের দিন রবিবার সকালে এই ঘটনায় সরিষাবাড়ী রেলওয়ে স্টেশনের সহকারী স্টেশন মাষ্টার আব্দুস সালাম জামালপুর রেলওয়ে থানায় অভিযোগ দায়ের করেন। পরে রাতে ৪২ জনের নামে ও অজ্ঞাত আরও ৩০ থেকে ৪০ জনের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করেন সরিষাবাড়ী রেলওয়ে পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ এএসআই মো: আব্দুল কাদের। মামলায় জেলা বিএনপির সভাপতি ফরিদুল কবীর তালুকদার শামীম, সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট শাহ মো: ওয়ারেছ আলী মামুন, সিনিয়র যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক শহীদুল হক খান দুলাল, সাংগঠনিক সম্পাদক লোকমান আহমেদ খান, জেলা বিএনপির সহ দপ্তর সম্পাদক গাউছুল আজম শাহীন, জেলা বিএনপির উপ দপ্তর সম্পাদক জহুরুল ইসলাম পিন্টু, জামালপুর সদর উপজেলা বিএনপির সভাপতি শফিউর রহমান, শহর বিএনপির সভাপতি লিয়াকত আলী, সাধারণ সম্পাদক শাহ আব্দুল্লাহ আল মাসুদ, জেলা যুবদলের সদস্য সচিব সোহেল রানা খান, জেলা স্বেচ্ছাসেবক দলের সভাপতি মনোয়ার হোসেন কর্ণেল, জেলা ছাত্রদলের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি মোশারফ হোসেন সিদ্দিকী, সরিষাবাড়ী উপজেলা বিএনপির সদস্য শ্যামল, সরিষাবাড়ী উপজেলা যুবদলের আহবায়ক ফয়জুল কবির তালুকদার শাহীন, উপজেলা ছাত্রদলের সদস্য সচিব মাসুদ রানা চপলসহ ৪২ জন বিএনপি নেতাকর্মীকে আসামী করা হয়েছে। 
জামালপুর রেলওয়ে থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) গুলজার হোসেন জানান, গতকাল রবিবার সন্ধ্যায় শহরের বাজারিপাড়া এলাকা থেকে জামালপুর সদর থানা পুলিশ ট্রেনে অগ্নিসংযোগ মামলায় এজাহারভুক্ত আসামী বিএনপি নেতা লিয়াকত আলীকে গ্রেফতার করে। তাছাড়া গতরাত থেকে আজ সকাল পর্যন্ত সরিষাবাড়ী উপজেলার বিভিন্ন স্থান থেকে অজ্ঞাত আসামী হিসেবে মুনছের আলী(৩৬), বাবু মিয়া(৫৫), রমজান আলী(৩৫), রেজাউল করিম(৪৫), নজরুল ইসলাম(৩২), সুজন মিয়া(১৯), রাজা মিয়া(২৬), আশিক মিয়া(১৯), মোরাদ হাসান(২৩), মোশারফ হোসেন(২৫) কে গ্রেফতার করে সরিষাবাড়ী থানা পুলিশ। গ্রেফতারের পর আজ সোমবার দুপুরে তাদের জামালপুর সদর আমলী আদালতে সোপর্দ করা হয়। পরে তাদের কারাগারে পাঠনোর নির্দেশ দেয় আদালত।   
উল্লেখ্য, গত শনিবার বিকালে ঢাকা থেকে ছেড়ে আসা জামালপুরের তারাকান্দিগামী আন্ত:নগর যমুনা এক্সপ্রেস ট্রেন রাত ১টা ৭ মিনিটে সরিষাবাড়ি রেলওয়ে স্টেশনে এসে পৌঁছায়। যাত্রাবিরতি শেষে রাত ১টা ১০ মিনিটে তারাকান্দির উদ্দেশ্যে ট্রেন ছাড়লে পেছনের কামরায় আগুন দেখে আতঙ্কিত যাত্রীসহ প্ল্যাটফর্মে থাকা লোকজন ডাক-চিৎকার শুরু করে। এ সময় চালক স্টেশনের অদূরেই ট্রেন থামিয়ে ফেললেও ট্রেনের পেছনে থাকা ‘ক’ এবং ‘গ’ নাম্বার কামরা পুরোপুরি ভষ্মীভূত হয়ে যায় এবং ‘খ’ নাম্বার কামরা আংশিকভাবে ক্ষতিগ্রস্থ হয়। অগ্নিকাÐের খবর পেয়ে সরিষাবাড়ী ফায়ার সার্ভিসের দুইটি ইউনিট দেড় ঘন্টা চেষ্টা চালিয়ে আগুন নিয়ন্ত্রণে আনে। 
 

দৈনিক জামালপুর
দৈনিক জামালপুর