• শনিবার ১৫ জুন ২০২৪ ||

  • আষাঢ় ১ ১৪৩১

  • || ০৭ জ্বিলহজ্জ ১৪৪৫

দৈনিক জামালপুর
সর্বশেষ:

রৌমারীতে ট্রাক্টরে অতিষ্ঠ মানুষ

দৈনিক জামালপুর

প্রকাশিত: ৬ মে ২০২৩  

কুড়িগ্রামের রৌমারী ও রাজীবপুর উপজেলার সব সড়কে বেপরোয়া গতিতে দাপিয়ে বেড়াচ্ছে অবৈধ ট্রাক্টর। ভোর থেকে শুরু করে মধ্যরাত পর্যন্ত চলাচল করে এসব ট্রাক্টর। চালকদের অধিকাংশই কিশোর। তাদের নেই কোনো প্রশিক্ষণ। লুকিং গ্লাস ছাড়াই চলছে এসব ট্রাক্টর। ফলে ঝুঁকি নিয়ে সড়কে চলাচল করতে হচ্ছে ছোট-বড় যানবাহনসহ পথচারীদের। 

এছাড়াও এসব অবৈধ ট্রাক্টরের বিকট শব্দ ও খোলামেলাভাবে বালু পরিবহনের ফলে স্বাস্থ্য ঝুঁকিতে পড়ছে শিশুসহ বৃদ্ধরা। ট্রাক্টর বন্ধে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ নেওয়ার দাবি জানান স্থানীয়রা।
সরেজমিনে দেখা যায়, রৌমারী ও রাজীবপুর উপজেলার গ্রামীণ সড়ক থেকে শুরু করে মহাসড়কে দাপটের সাথে চলছে বালুবাহী ট্রাক্টর। এসব মাটি নিয়ে যাওয়া হচ্ছে ইটভাটা ও খাল-পুকুর ভরাটের জন্য। এতে করে সড়কগুলোতে চলাচল করা ছোট যানবাহন, পথচারী ও স্কুল-কলেজগামী শিক্ষার্থীরা নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছেন প্রতিনিয়ত। খোলামেলাভাবে অবৈধ ট্রাক্টরগুলো বালু পরিবহনের ফলে ধুলিকণা ভাসছে বাতাসে। যার কারণে শ্বাসকষ্টসহ বিভিন্ন রোগে আক্রান্ত হচ্ছে মানুষ। এছাড়াও রাতের বেলায় ট্রাক্টরের বিকট শব্দে ঠিকমতো লেখাপড়া ও ঘুমাতে পারছেন না শিক্ষার্থীসহ সড়কের দু’ধারে বসবাসকারিরা। অপর দিকে বিভিন্ন প্রকল্পের অর্থ বরাদ্দ দিয়ে যেসব রাস্তা পাঁকাকরণ করা হচ্ছে ট্রাক্টরের কারনে সে রাস্তাগুলো নষ্ট হয়ে যাচ্ছে। ফলে টেশশসই উন্নয়ন অনিশ্চিত হয়ে পড়ছে। 
রৌমারীর দাঁতভাঙ্গা ইউনিয়নের আমবাড়ি গ্রামের রফিকুল ইসলাম, কাউনিয়ারচরের আবুল হাসেম, বন্দবেড় ইউনিয়নের কুটিরচর স্কুল এন্ড কলেজের অধ্যক্ষ জাহাঙ্গীর আলাম, রাজীবপুরের সদর ইউনিয়নের সবুজবাগ এলাকার সুজন মাহমুদ, টাংলিয়াপাড়া গ্রামের আব্দুল আলিমসহ অনেকে অভিযেগ করে বলেন,  ট্রাক্টরে করে বালু ও মাটি নিয়ে যাচ্ছেন ইটভাটার মালিক ও বালু ব্যবসায়িরা। এতে করে রাস্তা-ঘাট নষ্ট হয়ে যাচ্ছে। সড়কে চলচলা করতে হচ্ছে ঝুঁকি নিয়ে। তাঁরা বলেন, এসব অবৈধ ট্রাক্টর রাস্তা-ঘাটসহ পরিবেশের মারাত্মক ক্ষতি করলেও তা বন্ধে কোনো পদক্ষেপ নিচ্ছেন না স্থানীয় প্রশাসন। সচেতন মহলের দাবি, পরিবেশ বিনষ্টকারী ইঞ্জিন চালিত অবৈধ ট্রাক্টরগুলো বেশির ভাগ সময় বালু-মাটি পরিবহনের কাজে ব্যবহার করা হচ্ছে। এসব বালু বোঝাই ট্রাক্টর বেপরোয়া গতিতে চলাচল করছে। এতে গ্রামীণ ও মহাসড়কগুলো মারাত্মাক ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছে। দুর্ভোগ বাড়ছে সাধারণ মানুষদের। নিত্যদিনের জনদুর্ভাগ ও স্বাস্থ্যঝুঁকি কমাতে দায়িত্বশীলদের দৃষ্টি দেওয়া প্রয়োজন বলে মনে করেন তারা। 
রাজীবপুর উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা সারওয়ার জাহানের ভাষ্য, অতিরিক্ত শব্দ দূষণ মানুষর জন্য মারাত্মক ক্ষতিকর। প্রতিনিয়ত মাত্রাতিরিক্ত শব্দ দূষণ হলে মানুষের শ্রবণ শক্তি কমে যাবে। এছাড়াও মানুষের শ^াস-প্রশ^াসের মাধ্যমে দেহে প্রতিনিয়ত ধুলাবালু প্রবেশ করতে থাকলে ফুসফুসে মারাত্মক ক্ষতি হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে। তিনি বলেন, এক সময় দেখা যাবে ফুসফুস তার কার্য ক্ষমতা হারাতে বসবে। এছাড়াও ধুলাবালু শরীরে প্রবেশ করলে এ্যালার্জি, এ্যাজমা সর্দি-কাশি এমন জাতীয় রোগও হওয়ার আশঙ্কা রয়েছে। 
রৌমারী উপজেলা ট্রাক্টর মালিক সমিতির কোষাধ্যক্ষ জিন্নাত আলীর দাবি, বালু-মাটি বোঝাই ট্রাক্টর কাপড় বা পলিথিন দিয়ে ঢেকে নিয়ে চালান। এমন নির্দেশনা দিয়েছেন চালকদের। তিনি জানান, এই উপজেলায়
২০০ এর অধিক ট্রাক্টর রয়েছে। এদিকে রাজীবপুরের জাউনিয়ারচর এলাকার বিদ্যুৎ তালকদার বলেন,  তাঁর উপজেলায় প্রায় দুই শতাধীক অবৈধ ট্রাক্টর চলাচল করে। এসব ট্রাক্টরের বিকট শব্দ আর বেপরোয়া গতিতে সড়কে জীবনের ঝুঁকি নিয়ে চলাচল করতে হচ্ছে মানুষদের। এছাড়াও বালু বোঝাই ট্রাক্টরগুলো না ঢেকেই চলাচল করছে। 
রৌমারী থানার ওসি রুপ কুমার সরকার বলেন, (৬ এপ্রিল) উপজেলার কুটিরচর এলাকায় অভিযান চালিয়ে দুটি ট্রাক্টরের মালিক ও অবৈধভাবে বালুমাটি বেচার দায়ে ৩ ব্যক্তিকে ৫০ হাজার টাকা ভ্রাম্যমান আদালতের মাধ্যমে জরিমানা করা হয়েছে।  
রাজীবপুর থানার ওসি মোজাহারুল ইসলাম বলেন, বালু-মাটি পরিবহনের সময় ঢাকনা ব্যবহার করতে নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে ট্রাক্টর মালিকদের। তিনি জানান, ঈদের সময় যানজট নিরসনে দুপুর ১২ টার পর থেকে বাজারে যাতে কোনো ট্রাক্টর বালু-মাটি নিয়ে প্রবেশ না করতে পারে। এজন্য রাজীবপুর থানা পুলিশ নিয়মিত অভিযান পরিচালনা করে আসছে। কেউ নিয়ম না মানলে তাঁদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।  
রাজীবপুর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা অমিত চক্রবর্ত্তী বলেন, সড়কে অবৈধ ট্রাক্টর চলাচল আইন পরিপন্থী। দ্রæত উপজেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে অভিযান চালিয়ে আইনগত ব্যবস্থা নিবেন বলেও জানান তিনি। 
রৌমারী উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ভারপ্রাপ্ত) এবিএম সরোয়ার রাব্বীর মোবাইল ফোনে একাধিকবার কল করলেও তা রিসিভ করেননি তিনি।
 

দৈনিক জামালপুর
দৈনিক জামালপুর