• শুক্রবার ২৩ ফেব্রুয়ারি ২০২৪ ||

  • ফাল্গুন ৯ ১৪৩০

  • || ১১ শা'বান ১৪৪৫

দৈনিক জামালপুর

বাংলাদেশ-ভারত পর্যটন মেলার উদ্যোগ

দৈনিক জামালপুর

প্রকাশিত: ৩১ জানুয়ারি ২০২৪  

বাংলাদেশ ও ভারতের মধ্যে সহযোগিতা আরও বৃদ্ধিসহ দুদেশে পর্যটন মেলা আয়োজনের উদ্যোগ নেওয়ার কথা জানিয়েছেন পর্যটনমন্ত্রী মুহাম্মদ ফারুক খান।মঙ্গলবার সচিবালয়ে বাংলাদেশে নিযুক্ত ভারতের হাইকমিশনার প্রণয় কুমার ভার্মা পর্যটনমন্ত্রীর সঙ্গে সৌজন্য সাক্ষাৎ করেন। সাক্ষাৎ শেষে সাংবাদিকদের সঙ্গে মতবিনিময়কালে মন্ত্রী এসব কথা বলেন। মন্ত্রী বলেন, বিশেষ করে ভারত থেকে আরও বেশি পর্যটক কীভাবে বাংলাদেশ আসতে পারে সে বিষয়ে আমরা আলোচনা করেছি। পর্যটক বৃদ্ধির জন্য বাংলাদেশ ও ভারত যৌথভাবে দুদেশে পর্যটন মেলা আয়োজনের উদ্যোগ নেওয়া হবে। পর্যটকদের জন্য দুই দেশের মধ্যে ভিসা সহজ করার বিষয়েও কথা হয়েছে। সিভিল এভিয়েশন ও পর্যটন শিল্পে সহযোগিতা বৃদ্ধির মাধ্যমে দুদেশের বন্ধুত্ব আরও শক্তিশালী হবে। এই দুই খাতে সম্পর্ক বৃদ্ধির ব্যাপারে ভারতের পক্ষ থেকে আমাদেরকে কিছু প্রস্তাব দেওয়া হয়েছে। সেগুলো আমরা বিবেচনা করব। এছাড়াও দুই দেশের মধ্যকার আকাশ পথে যোগাযোগ আরও বৃদ্ধির বিষয়েও আলোচনা হয়েছে। এ সময় ভারতের হাইকমিশনার জানান, বাংলাদেশ এবং ভারতের মধ্যে এভিয়েশন এবং পর্যটন খাতের সহযোগিতা দুই দেশের অর্থনৈতিক ও বাণিজ্যিক সম্পর্ক আরও শক্তিশালী করবে। এটি দুই দেশের ক্রমবর্ধমান সম্পর্কের ক্ষেত্রে খুব গুরুত্বপূর্ণ বিষয়। এই সহযোগিতা কীভাবে আরও বৃদ্ধি করা যায় তা নিয়ে আমরা কাজ করব। প্রণয় কুমার ভার্মা আরও বলেন, বাংলাদেশের সিভিল এভিয়েশনে কর্মরত কর্মকর্তাদের সক্ষমতা বৃদ্ধির জন্য আমরা কাজ করছি। এরই মধ্যে ২০২২- ২৩ অর্থ বছরে ভারত ৩৬ জন কর্মকর্তাকে প্রশিক্ষণ দিয়েছে। ভবিষ্যতেও এটি চলমান থাকবে। বাংলাদেশের পর্যটন শিল্পের উন্নয়নে অনেক ভারতীয় বিনিয়োগকারী বিনিয়োগে আগ্রহী। এ সময় সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে ভারতীয় হাইকমিশনার বলেন, গত বছর ১৬ লাখ বাংলাদেশি নাগরিককে ভারতীয় ভিসা ইস্যু করা হয়েছে। দিন দিন এটির সংখ্যা বাড়ছে। বাংলাদেশিদের সময়মতো ভিসা প্রদানের জন্য আমরা আমাদের সক্ষমতা বৃদ্ধি করেছি। বাংলাদেশি নাগরিকদের জন্য ভারতে অন এ্যারাইভাল ভিসার বিষয়টি ভবিষ্যতে আলোচনা করা হবে।

দৈনিক জামালপুর
দৈনিক জামালপুর