• সোমবার ১৫ জুলাই ২০২৪ ||

  • আষাঢ় ৩০ ১৪৩১

  • || ০৭ মুহররম ১৪৪৬

শিশুকে বলাৎকারের পর হত্যার দায়ে একজনের ফাঁসি

দৈনিক জামালপুর

প্রকাশিত: ২০ নভেম্বর ২০২৩  

নারায়ণগঞ্জের সিদ্ধিরগঞ্জে ৭ বছরের এক শিশুকে বলাৎকারের পর হত্যা করে লাশ গুম করার ঘটনায় নাজমুল হোসেন ওরফে নাজু (৩৯) নামে একজনকে মৃত্যুদণ্ড দিয়েছেন আদালত। পাশাপাশি তাকে এক লাখ টাকা জরিমানা করা হয়েছে।
রোববার (১৯ নভেম্বর) দুপুরে নারায়ণগঞ্জের অতিরিক্ত দায়রা জজ ১ম আদালতের বিচারক উম্মে সরাবন তহুরা এ রায় দেন। রায় ঘোষণার সময় আসামি উপস্থিত ছিলেন না।

সাজাপ্রাপ্ত নাজমুল হোসেন ওরফে নাজু চুয়াডাঙ্গার আলমডাঙ্গা এলাকার জালাল উদ্দিনের ছেলে। তিনি সিদ্ধিরগঞ্জের রসুলবাগ এলাকার আলম খানের বাড়ির কেয়ারটেকার হিসেবে কর্মরত ছিলেন।

কোর্ট পুলিশের পরিদর্শক আসাদুজ্জামান বলেন, একই মামলায় অভিযোগ প্রমাণিত হওয়ায় মৃত্যুদণ্ডপ্রাপ্ত নাজমুল হোসেন ওরফে নাজুকে ৭ বছরের সশ্রম কারাদণ্ড, ৫০ হাজার টাকা জরিমানা অনাদায়ে আরো তিন মাসের বিনাশ্রম কারাদণ্ড দেওয়া হয়।

এছাড়া ঐ মামলায় ৩৭৭ ধারার অভিযোগ প্রমাণিত হওয়ায় আসামিকে ১০ বছরের সশ্রম কারাদণ্ড, ৫০ হাজার টাকা জরিমানা অনাদায়ে তিন মাসের বিনাশ্রম কারাদণ্ড দেওয়া হয়।

মামলা সূত্রে জানা গেছে, মৃত্যুদণ্ডপ্রাপ্ত নাজমুল যে বাড়িতে কেয়ারটেকার ছিলেন ঐ বাড়িতেই মামলার বাদী আনোয়ার হোসেন তার স্ত্রী-সন্তানকে নিয়ে বসবাস করতেন। তারা স্বামী-স্ত্রী দু’জনেই চাকরি করতেন। চাকরিতে যাওয়ার সময় তাদের ৭ বছরের শিশু তানজিলকে বাসায় রেখে যেতেন। তারা বাসার বাইরে থাকার সময় তানজিলকে দিয়ে স্টোর রুমের কাজ করাতেন নাজমুল। তাকে কাজ করাতে নিষেধ করলে আনোয়ার হোসেনের ওপর ক্ষিপ্ত হন তিনি।

২০১৯ সালের ১৬ ফেব্রুয়ারি আনোয়ার হোসেন ও তার স্ত্রী কাজের উদ্দেশ্য বাইরে গেলে শিশু তানজিলকে দিয়ে নাজমুল বিভিন্ন কাজ করান। ঐদিন সন্ধ্যার সময় নেশা জাতীয় দ্রব্য সেবন করিয়ে স্টোর রুমে নিয়ে ২০ টাকা দেওয়ার প্রলোভন দেখিয়ে তানজিলকে বলাৎকার করেন নাজমুল। এসময় সে চিৎকার করলে তার নাক মুখ ও গলা চেপে ধরে শ্বাসরোধ করে হত্যা করে লাশ গুম করেন তিনি।

এ ঘটনায় আনোয়ার মামলা করেন। সেই মামলার বিচার কার্যক্রম শেষে আজ এ রায় দেন আদালত।

দৈনিক জামালপুর
দৈনিক জামালপুর