• বুধবার ১৭ জুলাই ২০২৪ ||

  • শ্রাবণ ২ ১৪৩১

  • || ০৯ মুহররম ১৪৪৬

বঙ্গোপসাগরের মাঝে দুটি চর ড্রেজিংয়ের পরামর্শ

দৈনিক জামালপুর

প্রকাশিত: ১৬ জুন ২০২৪  

সেন্ট মার্টিন দ্বীপের কাছাকাছি বঙ্গোপসাগরের মাঝে দুটি বালুচর জেগেছে। ভাটার সময় ওই পথে নৌযানগুলো চলাচল করে। মিয়ানমারের বর্ডার গার্ড পুলিশের (বিজিপি) সঙ্গে বাংলাদেশের বিজিবির সমন্বয়ের কারণে এই পথে চলাচলে কখনোই কোনো বাধার সৃষ্টি হয়নি। সম্প্রতি আরাকান আর্মি মিয়ানমারের এই অঞ্চল দখল করে নেওয়ার কারণে সেন্টমার্টিনগামী নৌযান লক্ষ করে তারা গুলি ছুড়ছে।

চর দুটো ড্রেজিং করলে এই সমস্যার সমাধান হয়ে যাবে জানিয়েছেন সংশ্লিষ্টরা।
জানা গেছে, আরাকান আর্মি মিয়ানমারের এই অঞ্চল দখল করে নেওয়ার কারণে সৃষ্ট সমন্বয়হীনতার কারণে সেন্টমার্টিনগামী ট্রলার ও নৌযানে আরাকান আর্মি গুলি ছুড়ছে। ফলে কর্তৃপক্ষ কর্তৃক বাণিজ্যিক ট্রলার ও স্পিডবোট চলাচল সাময়িক স্থগিত করার কারণে সেন্টমার্টিনে বসবাসকারীদের মধ্যে খাদ্য সংকট তৈরি হয়েছে। যা নিয়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে আলোচনা-সমালোচনা চলছে।

উল্লেখ্য, নৌযান চলাচল স্থগিত এবং খাদ্য সংকটের পাশাপাশি মিয়ানমার নৌবাহিনীর টহল বৃদ্ধি পাওয়ায় দ্বীপটির স্থানীয়দের মধ্যে আতঙ্ক বিরাজ করছে। এমন অবস্থায় প্রশাসন দ্বীপের স্থানীয়দের আতঙ্কিত না হওয়ার জন্য পদক্ষেপ নেওয়া যেতে পারে। পাশাপাশি সংশ্লিষ্টরা অনাকাঙ্ক্ষিত গুলিবর্ষণের ঘটনা রোধকল্পে আরাকান আর্মির সঙ্গে প্রয়োজনীয় সমন্বয়সাধন করা যেতে পারে। 

সংস্থাটির মতে, টেকনাফের সাবরাং টুরিজ্যম ইকো পার্ক সংলগ্ন সাগর উপকূলে জেটি ঘাট নির্মাণ করা হলে সেন্টমার্টিনের সঙ্গে টেকনাফের যোগাযোগ সহজ ও কম সময়ে সম্পন্ন হবে এবং স্থানীয় জেলে, পর্যটক ও সেন্টমার্টিনের স্থানীয় বাসিন্দাদের টেকনাফ-সেন্টমার্টিন রুটে চলাচল নিরাপদ হবে।

দৈনিক জামালপুর
দৈনিক জামালপুর