• বুধবার ১৭ জুলাই ২০২৪ ||

  • শ্রাবণ ২ ১৪৩১

  • || ০৯ মুহররম ১৪৪৬

দেওয়ানগঞ্জে হু হু করে বাড়ছে পানি; ৮টি ইউনিয়ন প্লাবিত

দৈনিক জামালপুর

প্রকাশিত: ৪ জুলাই ২০২৪  

জামালপুরের দেওয়ানগঞ্জে বন্যার পরিস্থিতির অবনতি হয়েছে। ব্রহ্মপুত্র, যমুনা ও জিঞ্জিরাম নদ-নদীর পানি বৃদ্ধি অব্যাহত রয়েছে। এতে উপজেলার ৮টি ইউনিয়ন প্লাবিত হয়েছে।  

বৃহস্পতিবার (৪ জুলাই) দুপুর পর্যন্ত যমুনার বাহাদুরাবাদ পয়েন্টে বিপদসীমার ৭৪ সেন্টিমিটার উপর দিয়ে পানি প্রবাহিত হচ্ছে।

গত কয়েক দিনের প্রবল বর্ষণ ও পাহাড়ি ঢলে নদীতে পানি বৃদ্ধি পাওয়ায় নতুন নতুন এলাকা প্লাবিত হচ্ছে। উপজেলার নয়াগ্রাম ও কাঠারবিল সড়ক ভেঙে যাওয়ায় যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন রয়েছে।  সেখানে নৌকায় পারাপার হচ্ছে মানুষ। সুযোগে অধিক ভাড়া নেয়ার অভিযোগ তুলছে যাত্রীরা। 

অপরদিকে দেওয়ানগঞ্জ-বাহাদুরাবাদ সড়কের সরদার পাড়া ভাঙ্গন স্থানের কাজ শেষ পর্যায়ে। অতিসত্বর যোগাযোগ সচল হবে বলে আশা প্রকাশ করেছেন উপজেলা প্রকৌশলী মো: তোফায়েল আহম্মেদ।
 দেওয়ানগঞ্জ রেল স্টেশন-উপজেলা পরিষদ-দেওয়ানগঞ্জ সরকারি হাসপাতাল রোডে পানি। রেল কলোনীতেও পানি উঠেছে।

পিআইও মাহফুজুর রহমান জানান, চুকাইবাড়ী ইউনিয়নের একটি গুচ্ছ গ্রাম ও একটি আশ্রয়ণ কেন্দ্রের শতাধিক বানভাসিকে আশ্রয় দেয়া হয়েছে রেলওয়ে উচ্চ বিদ্যালয় ও রেলওয়ে সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে। গত বুধবার (৩ জুলাই) তাদের মধ্যে শুকনো খাবার বিতরণ করা হয়েছে। অন্য বারের মতো এবারও দেওয়ানগঞ্জ সরকারি এ কে এম কলেজে বানভাসি মানুষদের আশ্রয় দেয়া সম্ভব না হওয়ায় অন্যস্থানে তাদের উপযুক্ত ব্যবস্থা করা হয়েছে বলে জানান উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন অফিসার মো: মাহফুজুর রহমান।

তিনি দুঃখ প্রকাশ করে বলেন, কলেজে পরীক্ষা চলছে বলে তা সম্ভব হচ্ছে না। অধিকাংশ জন প্রতিনিধি তাদের এলাকার বন্যা পরিস্থিতি ও ক্ষয়ক্ষতির বিষয় না জানানোতে আমাদের পক্ষে সঠিক ক্ষয়ক্ষতির হিসাব নির্ণয় করতে অসুবিধা হচ্ছে। বন্যায় পৌরসভাসহ উপজেলার আট ইউনিয়নের নিম্নাঞ্চল প্লাবিত হয়েছে। দেওয়ানগঞ্জ-ফুটানি বাজার সড়ক পানিতে তলিয়ে গেছে। বন্যার্তদের অনেকেই অন্য বারের মতো ইতোমধ্যে দেওয়ানগঞ্জ রেল স্টেশন প্লাটফর্মে পরিবারের সদস্য ও গবাদি পশু আনা শুরু করেছেন।

জামালপুর পানি উন্নয়ন বোর্ডের নির্বাহী প্রকৌশলী মো. রফিকুল ইসলাম জানান, আজ দুপুর পর্যন্ত দেওয়ানগঞ্জের যমুনার বাহাদুরাবাদ ঘাট পয়েন্টে পানি বৃদ্ধি পেয়ে বিপৎসীমার ৭৪ সেন্টিমিটার ওপর দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে। আরো কয়েকদিন পানি বাড়ার শঙ্কা রয়েছে।

দৈনিক জামালপুর
দৈনিক জামালপুর