• বৃহস্পতিবার   ২৭ জানুয়ারি ২০২২ ||

  • মাঘ ১৪ ১৪২৮

  • || ২২ জমাদিউস সানি ১৪৪৩

দৈনিক জামালপুর

সুবর্ণজয়ন্তীতে যুক্তরাষ্ট্রের আকাশে ‘৫০’ লিখলেন বাংলাদেশি পাইলট

দৈনিক জামালপুর

প্রকাশিত: ২২ ডিসেম্বর ২০২১  

বাংলাদেশের স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী উপলক্ষ্যে নিউইয়র্কের আকাশে বিমান উড়িয়ে এভিয়েশন রাডারে '৫০' সংখ্যাটি এঁকেছেন এক তরুণ বাংলাদেশি পাইলট।
২০ বছর বয়সী এ তরুণ পাইলটের নাম ফারহান হক। তিনি তাঁর বন্ধু আসাদ আবদুল্লাহকে নিয়ে গত ১৬ ডিসেম্বর সেসনা সি১৭২ এয়ারপ্লেনে চড়ে মাতৃভূমির স্বাধীনতার ৫০ বছর উপলক্ষ্যে এভাবে শ্রদ্ধা জানিয়েছেন।
 
ফেসবুকে দেওয়া স্ট্যাটাসে ফারহান লিখেছেন, "প্রথমবারের মতো এভিয়েশন রাডার ম্যাপে বাংলা ভাষায় কিছু একটা লেখা হল। এটি ঘোষণা দিতে পেরে গর্বিত অনুভব করছি যে, আনুষ্ঠানিকভাবে 'মিশন ৫০' সম্পন্ন হলো। এই '৫০' সংখ্যাটির মাধ্যমে বাংলাদেশের ৫০তম বিজয় দিবসকে বোঝানো হয়েছে এবং এটি ৭১ জিপিএস কোঅর্ডিনেট দিয়ে আঁকা হয়েছে যা মূলত ১৯৭১ সালের স্বাধীনতার প্রতিনিধিত্ব করে। এটি সম্ভব করতে সহায়তা করায় আসাদুল্লাহ আবদুল্লাহ এবং আমাদের জেডএনওয়াই এটিসি কনট্রোলার্সকে অনেক ধন্যবাদ। বিজয় দিবসের অভিনন্দন।"

এ বিষয়ে ফারহান গণমাধ্যমকে বলেন, "বাংলাদেশের জন্য কিছু করার তাড়না সবসময়ই আমার মধ্যে কাজ করে। যখন আমরা ৫০তম বিজয় দিবস পালনের প্রস্তুতি নিচ্ছিলাম তখন এটা একেবারে মাথার ভেতরে ঢুকে যায়। সেকারণে আমি চিন্তা করেছি আমাদের জন্য যারা এ দেশটি স্বাধীন করেছেন তাদের শ্রদ্ধা জানাতে একটি এয়ারক্রাফট নিয়ে আকাশে বাংলায় ৫০ সংখ্যাটি লিখতে। প্রাথমিকভাবে আমরা এটা আটলান্টিক মহাসাগরের ওপর দিয়ে করতে চেয়েছিলাম। তবে নিরাপত্তার কথা বিবেচনায় নিয়ে স্থলভাগের ওপর করার পরিকল্পনা করেছি। আমাদের ক্যানভাস হিসেবে বেঁছে নিয়েছি কানেটিকাট রাজ্যের আকাশ। এই ফ্লাইট প্রায় আড়াই ঘণ্টাব্যাপী স্থায়ী ছিল।"

সেসনা সি১৭২ এয়ারক্রাফট দিয়ে বিশ্বের ব্যস্ততম এই আকাশপথে ফ্লাইটটি সম্ভব করা বেশ চ্যালেঞ্জিং ছিল বলেও উল্লেখ করেন তিনি।

ফারহান হক যুক্তরাষ্ট্রের নিউইয়র্কের ফেডারেল এভিয়েশন এডমিনিস্ট্রেশনের সনদ পাওয়া একজন প্রাইভেট পাইলট।বর্তমানে তিনি   জন এফ কেনেডি বিমানবন্দরে গ্রাউন্ড অপারেশনস ক্রু হিসেবে কাতার এয়ারওয়েজে কাজ করছেন।

দৈনিক জামালপুর
দৈনিক জামালপুর